Press "Enter" to skip to content

নির্লজ্জ্ব কংগ্রেস! কুমন্তব্য করে ভারতীয় সেনাকে অপমান করলো কংগ্রেস নেতা পি চিদাম্বরম।

, ভারতের তামিলনাড়ু রাজ্য থেকে উঠে আসা কংগ্রেসের একজন নেতা। একই সাথে উনি একজন উকিল ও দুর্নীতির সাথে জড়িয়ে থাকা একজন অভিযুক্ত ব্যাক্তি। কংগ্রেস আমলে চিদাম্বরম অর্থমন্ত্রী হিসেবে নিযুক্ত ছিলেন এমনকি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর পদেও বসে ছিলেন।চিদাম্বরম কংগ্রেসের একটা পরম্পরাকে বহু দিন থেকে চালিয়ে আসছেন। সেই পরম্পরাটি হলো ভারতীয় সেনাকে গালিগালাজ করা এবং সেনার মনবল কম করা। এমনিতেই কংগ্রেসের নেতারা প্রায় সময় পাকিস্থানের হয়ে মন্তব্য করে সেনার মনবল কম করে। তার মধ্যে চিদাম্বরমের মতো নেতারা পরোক্ষভাবে পাকিস্থানকে সমর্থন করে ভারতীয় সেনাকে ছোটো করলে, সেটা পাকিস্থানি দৃষ্টিকোণ থেকে আরো সুন্দর হয়ে উঠে। সম্প্রতি এমনি সেনা বিরোধী মন্তব্য করেছেন চিদাম্বরম।

আসলে কয়দিন আগে ভারতীয় স্থল সেনা প্রমুখ বিপিন রাউত বলেছেন আমেরিকা যেভাবে পাকিস্থানে ঢুকে ওসামা বিন লাদেনকে মেরে ফেলেছিল ঠিক একইভাবে ভারতের সেনাও পাকিস্থানে অপেরাশন চালানোর ক্ষমতা রাখে। বিপিন রাউতের এই মন্তব্য ভারতের এক সংবাদ মাধ্যম “টাইমস নাউ” এ করেছিলেন। এই মন্তব্যের পর পাকিস্থানের মিডিয়া ও পাক কট্টরপন্থীরা বিলবিলিয়ে উঠেছিল। তবে শুধু পাকিস্থান নয়, ভারতে থাকা পাকিস্থান সমর্থক ও কংগ্রেসিরাও ওই মন্তব্যে বিলবিলিয়ে উঠেছিল।

যার প্রমাণ কংগ্রেস নেতা চিদাম্বরমের বক্তব্যে স্পষ্ট উঠে এসেছে। চিদাম্বরম বলেছেন যখন মুম্বাই হামলা হয়েছিল তখন শক্তিশালী ছিল না যার কারণে আমরা হাফিজ শাহিদকে মারার জন্য পকিস্থানে পাঠায়নি। যদি আমরা সেনা পাঠিয়ে দিতাম তাহলে সেনা ব্যর্থ হয়ে যেত। সেনা অপেরাশন করার জন্য সক্ষম ছিল না আর আজও পাকিস্থানে অপেরাশন করার জন্য সক্ষম নয়।

পি চিদাম্বরম তার মন্তব্যের মাধ্যমে ভারতীয় সেনাকে অপমান করেন। একদিকে যখন সেনা প্রধান বিপিন রাউত বলছেন যে আমাদের সেনা অপেরাশন চালাতে সক্ষম তখন চিদাম্বরম এর মন্তব্য সত্যিই দুর্ভাগ্যজনক। কংগ্রেস নেতা তাদের পরম্পরা অনুযায়ী ভারতীয় সেনাকে অপমান করে পরোক্ষভাবে পাকিস্থানকে সমর্থন করেছেন। তবে শুধু এখন নয়, কংগ্রেস বরাবর ভারতীয় সেনার মনবল কমানোর সাপেক্ষে মন্তব্য করে।