Press "Enter" to skip to content

ফের ব্যার্থ রাহুল… এবার জাত-পাতের অভিযোগ তুলে দল ছাড়লেন বিধায়ক, যোগ দিতে পারেন বিজেপিতে

শনিবার গুজরাট কংগ্রেসের বিধায়ক আশা প্যাটেল বিধানসভা এবং পার্টির সদস্যতা পদ থেকে ইস্তফা দিলেন। উনি এই ইস্তফা দেওয়ার কারণ হিসেবে জাত-পাতের রাজনীতিকে দায়ী করেছেন। শনিবার গান্ধীনগরে গুজরাট বিধানসভা সভাপতি রাজেন্দ্র ত্রিবেদীর কাছে নিজের ইস্তফা পত্র দেন কংগ্রেসের এই বিধায়ক।

আশা প্যাটেলে এই ইস্তফা দেওয়ার পর গুজরাট কংগ্রেস বড়সড় ঝটকা খেতে চলেছে। ২০১৭ এর বিধানসভা নির্বাচনে এই বিধায়ক বিজেপির হাত থেকে জয় ছিনিয়ে কংগ্রেসকে ওনার আসনটি উপহার স্বরুপ দিয়েছিলেন। উনি গুজরাটের উনঝা আসনে থেকে বিধায়ক। এই আসন গুজরাটের মেহসানা লোকসভা সাতটি আসনের মধ্যে একটি।

কংগ্রেসের এই বিধায়ক তাঁর দলের উপর জাত পাটের রাজনীতি করার মত গুরুতর অভিযোগ এনে দল ছাড়েন। উনি জানান, প্রধানমন্ত্রী গোটা দেশে আর্থিকভাবে পিছিয়ে পরা মানুষদের জন্য ১০ শতাংশ সংরক্ষণ চালু করেছেন। আর এদিকে কংগ্রেস এখনো জাত-পাত নিয়ে রাজনীতি করে চলেছে। এই দলে আমার থাকা সম্ভব না, আমার এই দলে এখন দম বন্ধ হয়ে আসছে।

কংগ্রেস সুত্র থেকে জানা গেছে যে, আশা দল ছাড়ার আগে গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী বিজয় রুপানির সাথে সাক্ষাৎ করেছিলেন। আর তারপরেই উনি এই সিদ্ধান্ত নেন। কংগ্রেস সুত্র থেকে এটাও জানা গেছে যে কংগ্রেসের আরও ১২ জন বিধায়ক বিজেপির সাথে যোগাযোগ রাখছে। তাঁদের মধ্যে অল্পেশ ঠাকুর অন্যতম। কংগ্রেসের আশঙ্কা এখন গুজরাটে তাঁদের দল ভেঙে পড়তে পারে।

 

8 Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.