Press "Enter" to skip to content

হিন্দুদের অপমান করে গান রিলিজ করলো কংগ্রেস! নিশ্চুপ দালাল মিডিয়া ও তথাকথিত বুদ্ধিজীবী।

নির্বাচনী প্রচারে নামে আবারো শুরু হলো হিন্দুদের বিরুদ্ধে প্রচার। রাজনৈতিক বিরোধ করতে গিয়ে আবারো দেশের বহু সংখ্যক হিন্দুদের আস্থাতে আঘাত করলো কংগ্রেস পার্টি। দেশের সবথেকে পুরানো রাজনৈতিক পার্টি কংগ্রেস। যারা একসময় হিন্দুদের খুশি করে ভোট চাইতো তারাই এখন হিন্দু বিরোধী কুকৃত্য করতে কোনো সুযোগ ছাড়ছে না। বিজেপি বিরোধ করতে গিয়ে এখন কংগ্রেস পার্টি পুরো হিন্দু সমাজের বিরোধে নেমে পড়েছে। অথচ দেশের একটাও তথাকথিত নিরপেক্ষ মিডিয়া এ নিয়ে প্রশ্ন তোলেনি।

প্রথমত জানিয়ে দি, কংগ্রেসের জানিয়েছেন যে গানটি বিজেপি পার্টির বিরুদ্ধে তথা ভক্তদের বিরুদ্ধে। কিন্তু লক্ষণীয় বিষয় এই যে, গানটির Thumbnail এ যে ছবি ব্যাবহার করা হয়েছে সেটা কোনোভাবেই বিজেপিকে ইঙ্গিত করে না। Thumbnail এ ব্যাবহৃত ছবিতে গেরুয়া পতাকা, ভগবান শিবের মাথায় থাকা ত্রি তিলক দেখানো হয়েছে। যা কোনোভাবেই বিজেপিকে বা মোদীভক্তদের প্রকাশ করে না। গেরুয়া পতাকা, ভগবান শিবের মাথায় থাকা ত্রি তিলক সমগ্র হিন্দু জাতিকে প্রকাশ করে।

দ্বিতীয়ত, ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে এক হিন্দু যুবক লাঠি হাতে রয়েছে। ভিডিওর মাধ্যমে হিন্দু যুবককে গুন্ডা, মাফিয়া ইত্যাদি দেখানোর চেষ্টা হয়েছে। এই গানের মাধ্যমে দেখানো হয়েছে যে, মোদী যোগীর আমলে হিন্দুরা উগ্র এবং সন্ত্রাসী হয়ে সংখ্যালঘুদের উপর অত্যাচার করে তথা দাঙ্গা বাধায়। যদিও মিডিয়া রিপোর্ট অনুযায়ী, মোদী আমলে সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা সবথেকে কম হয়েছে। আর সবথেকে উল্লেখ্য বিষয়, ভারতে যত সাম্প্রদায়িক দাঙ্গা হয় তার মধ্যে একটাও হিন্দুদের পক্ষ থেকে আরম্ভ হয় না। এমনকি মিডিয়া মব লিনচিং তথা নিরীহ মানুষকে গণপিটুনির নামে যে এজেন্ডা তৈরি করে তার বেশিরভাগই জালি(মিথ্যা)।

উদাহরণস্বরূপ, এক মাস আগেই মিডিয়া উত্তরপ্রদেশে যে মিথ্যা গণপিটুনির ঘটনা সামনে এনে তুলেছিল তার সত্য দুদিন পরেই সামনে এসেছিল। আসল ঘটনা ছিল সমাজবাদী পার্টির দুই নেতা হিন্দুদের বদনাম করানোর জন্য এক কাশ্মীরির উপর আক্রমণ করেছিল। এমনকি আসাম থেকে যে গণপিটুনির ঘটনা সামনে এসেছিল তাও মিথ্যা ছিল। অসমে ছাগলের মাংসের বদলে অন্য পশুর মাংস বিক্রি চলছিল। তাই নিয়েই দ্বন্দ বিতর্ক হয়েছিল কিন্তু মিডিয়া পুরোটাকে হিন্দুত্ববাদীদের গুন্ডামি বলে এজেন্ডা চালিয়েছিল। India Rag লাগাতার হিন্দুদের বিরুদ্ধে করা ষড়যন্ত্রের পর্দাফাঁস করেছে।

কংগ্রেসের দ্বারা রিলিজ করা গানে আরো একটা লক্ষণীয় বিষয়- লিনচিং এর ফটোতে আয়ুব পন্ডিতের ছবি দেখানো হয়েছে। গানের মাধ্যমে দেখানো হয়েছে যে আয়ুব পন্ডিতকে ভক্তরা মেরেছে। কিন্তু এটা সকলের জানা যে, আয়ুব পন্ডিতকে ইসলামিক আতঙ্কবাদীরা হত্যা করেছিল। অর্থাৎ পুরো গানের মধ্যে দিয়ে ভারতের বহুসংখ্যক হিন্দুদের অপমান করার কোনো সুযোগ ছাড়েনি কংগ্রেস। আসলে কংগ্রেস যেনতেন ভাবে এটাই প্রমান করার চেষ্টা করেছে যে হিন্দু কট্টর, অসহিষ্ণু। রাজনৈতিক প্রচারের জন্য একটা জাতীয় স্তরের পার্টি গেরুয়া পতাকার এইভাবে অপমান করতে পারে এটাই সবথেকে লজ্জাজনক। পাঠকদের জন্য ভিডিও নীচে দেওয়া হলো-

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.