Press "Enter" to skip to content

বাংলায় বিজেপিকে আনার পেছনে বড় অবদান ফেসবুকের ৩৭ লক্ষ মোদীভক্তের ! তার মধ্যে আপনিও একজন হলে শেয়ার করুন

২০১৪ সালে বিজেপি (bharatiya janata party) লোকসভাতে পশ্চিমবঙ্গ থেকে মাত্র ২ টি আসন পাওয়ার পর এখন ১৮ টি আসনে পৌঁছে গেছে। কিন্তু এত কম সময়ের মধ্যে এত বড় সফলতা কিভাবে এল? এর সমীক্ষা করতে গিয়ে একটা জিনিষ উঠে এসেছে তা হল সোশ্যাল মিডিয়ার বিজেপির শক্তি বৃদ্ধি। অবশ্য রাজ্য বিজেপির অনেক নেতা এমন রয়েছে যারা সোশ্যাল মিডিয়াকে নগন্য মনে করে ।

অথচ এই নেতারাই যখন তৃণমূলের ভয়ে মাঠে নেমে প্রচার করতে পারেনি তখন সোশ্যাল মিডিয়া মানুষের কাছে বিজেপির কথা তুলে ধরেছে। তৃণমূলের গুন্ডাদের ভয়ে নেতারা এলাকায় এলাকায় গিয়ে যখন প্রচার চালাতে পারেনি তখন সোশ্যাল মিডিয়ায় ছিল একমাত্র ভরসা।সোশ্যাল মিডিয়ায় মধ্যে সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে ফেসবুক !

এছড়াও হোয়াটসআপ টুইটারেও বিজেপির প্রচার তীব্র ছিল। জানিয়ে দি সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রচারের এই ক্রেডিট অনেকে নিজের নিজের কাঁধে নেওয়ার চেষ্টা করলেও আসলে এর পেছনে পুরো ক্রেডিট পশ্চিমবঙ্গের ৩৭ লক্ষ মোদী সমর্থকদের। যারা দিন রাত এক করে নির্ভয়ে নিজের টাইম লাইনে, গ্রুপে , পেজে পোষ্ট করার মাধ্যমে রাজ্যের জনগণকে প্রভাবিত করেছিল। এছাড়াও অনেক সাধারণ পেজ, বা ট্রোল পেজের ও ভূমিকা অনেকটাই !

জানিয়ে দি, ৩৭ লক্ষের মধ্যে বেশিরভাগজন রাজ্যের সাধারণ মানুষ। এরা কেউ টাকার বিনিময়ে মোদীর বা বিজেপির প্রচার করত না। সকলেই নিঃস্বার্থ ভাবে রাষ্ট্রবাদ ও হিন্দুত্ববাদের জন্য প্রচার করেছিল আর এখনো করে চলছে। আর রাষ্ট্ৰবাদ ও হিন্দুত্ববাদের জন্য প্রচার সরাসর বিজেপির ভোটব্যাংক তৈরি করতে সাহায্য করেছে।

রাষ্ট্রবাদী ও হিন্দুত্ববাদীরা পশ্চিমবঙ্গে বিজেপির জন্য প্রায় ৭০টি গ্রুপ( ছোট বড় মিলিয়ে) অসংখ্য পেজ তৈরি করে প্রচার চালিয়ে ছিল। এই পেজ, গ্রুপ গুলি এখন বর্তমান রয়েছে এবং লাগাতার প্রচার চালিয়ে যাচ্ছে।জানিয়ে দি, নরেন্দ্র মোদীর জন্য পশ্চিমবঙ্গে যে ৩৭ লক্ষ মানুষ প্রচার করে(এরা কেউ IT  CELL এর কর্মী নয়) আর এই ডেটা ফেসবুকের এডভার্টিসমেন্ট ডিটেইলস থেকে নেওয়া !

এই ৩৭ লক্ষের মধ্যে ২৭ লক্ষ বাঙালি এবং বাকি অন্য ভাষাভাষীর মানুষ রয়েছে। ২৭ লক্ষ বাঙালির মধ্যে ২১ লক্ষ পুরুষ এবং ৬ লক্ষ মহিলা। ২১ লক্ষ পুরুষদের মধ্যে ৮ লক্ষ এমন যাদের বয়স ১৮ থেকে ২৪ এর মধ্যে। অন্যদিকে ৯ লক্ষ এমন রয়েছে যাদের বয়স ২৪ থেকে ৩৪ এর মধ্যে। এরা সকলেই নিঃস্বার্থভাবে রাজ্যে পরিবর্তন আনতে সোস্যাল মিডিয়ায় নরেন্দ্র মোদীর হয়ে প্রচার চালিয়েছে।এই ৩৭ লক্ষ লাগাতার নিজের টাইমলাইন, গ্রুপে মোদীর সমর্থনে প্রচার করেছিল। পশ্চিমবঙ্গে বিজেপি আনতে সবথেকে বেশি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা এই ৩৭ লক্ষ মানুষের।

৩৭ লক্ষ মানুষের মধ্যে ২ লক্ষ মানুষ সবথেকে বেশি সক্রিয় থাকে যারা প্রতিমুহূর্তে বিজেপির সমর্থনে পোষ্ট আপডেট করে এবং বাকিরা সেই পোষ্ট শেয়ার করে জনজাগরণ ঘটায়। জানিয়ে দি, পশ্চিমবঙ্গে বিজেপি ১৮ টি আসন পাওয়ার পর থেকে অনেকে নিজের নিজের মাথায় এই জয়ের ক্রেডিট নিতে ব্যাস্ত। তবে আমাদের মতে পশ্চিমবঙ্গে বিজেপির এত বড় জয়ের পেছনে সবথেকে বড় ভূমিকা ৩৭ লক্ষ সাধারণ সচেতন মোদী সমর্থকের। আর এর মধ্যে যদি আপনিও একজন হয়ে থাকেন তাহলে আজ গর্বের সাথে নিজের টাইমলাইনে ও গ্রুপে শেয়ার করুন !

Comments are closed.

you're currently offline