Press "Enter" to skip to content

দিদির মনে গুণ্ডাদের জন্য মমতা আছে! আর জনতার জন্য নির্মমতা!

লোকসভা নির্বাচনের তৃতীয় দফার ভোট সম্পন্ন হয়েছে। আর লোকসভা নির্বাচনের জন্য প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর লাগাতার একের পর এক র‍্যালি করে চলেছেন। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বুধবার বোলপুর আর রাণাঘাটে দুটি সভা করেন। উনি রাণাঘাটের সভা থেকে বলেন, ‘ পশ্চিমবঙ্গে দিদির মনে গুণ্ডাদের জন্য মমতা আছে, আর জনসাধারণের জন্য নির্মমতা”। প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘এবার দিদির বাঁচা শুধু মুশকিলই না, একেবারে অসম্ভব। কারণ এবার বাংলার জনতা বিজেপির সাথে আছে, আর দিদির বিরুদ্ধে।”

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেন, ২০০৯ সালে দিদি রাষ্ট্রপতি শাসনের দাবি তুলেছিলেন, আর বলেছিলেন সেনা মোতায়েন করে নির্বাচন করানো দরকার। মানুষ ওনার উপর ভরসা করেছিল, আর ভোটও দিয়েছিল, কিন্তু দিদি বাংলার জনগণের সাথে বিশ্বাসঘাতকতা করেছে।

২৩ মে নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণার পর পশ্চিমবঙ্গে বড়সড় কিছু হতে চলেছে। আমরা নারদা আর সারদা দুর্নীতিতে যুক্ত ব্যাক্তিদের সঠিক স্থানে পাঠাব। কাউকে ছাড়া হবেনা। তাছাড়াও অবৈধ অনুপ্রবেশ আটকাতে আমরা সংসদে এনআরসি আর সিএবি পাশ করাব। মমতা ব্যানার্জী যতদিন মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন না, ততদিন বাম শাসনে উনি অনুপ্রবেশকারীদের ভারত থেকে ধাক্কা মেরে বের করে দিতে চেয়েছিলেন। আর এখন তিনি নিজের ক্ষমতা ধরে রাখার জন্য, আর ভোট ব্যাংকের রাজনীতি করার জন্য সেই অনুপ্রবেশকারীদের পক্ষ নিচ্ছেন।

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.