Press "Enter" to skip to content

ভারত পেল আমেরিকার সাথ! বড়ো সিধান্ত নিলো ট্রাম্প প্রশাসন।

২৬/১১ নিয়ে আমেরিকার রাষ্ট্রপতি বড়ো মন্তব্য করে দিয়েছেন। মুম্বাই হামলার ১০ বছর পূর্তি হওয়ার রাত সাপেক্ষে রাষ্ট্রপতি ডোনাল্ট ট্রাম্প টুইট করেছেন। ট্রাম্প লিখেছেন মুম্বাই হামলার ১০ বছর পূর্ন হওয়ার ক্ষেত্রে ের সাথে দাঁড়িয়েও রয়েছে। ন্যায়বিচারের জন্য আমেরিকা ের পাশে দাঁড়িয়ে আছে , এমনটা লিখেছেন ট্রাম্প। ট্রাম্প লিখেছেন, এই হামলায় আমরা কোনোভাবেই আতঙ্কবাদীদের জিততে দেব না। জানিয়ে দি, মুম্বাইয়ের সংত্রাসবাদী হামলায় ৬ জন আমেরিকান সহ ১৬৬ জন প্রাণ হারিয়েছিলেন। ট্রাম্প টুইটে লিখেছেন আমরা আমরা আতঙ্কবাদীদের জিততে দেব না, এমনকি জেতার কাছাকাছিও আসতে দেব না। আমেরিকা ঘোষণা করেছে যারা ২০০৮ এর মুম্বাই হামলার আতঙ্কবাদীদের গ্রেপ্তার করিয়ে দেবে অথবা কারোর দোষসিদ্ধ করতে পারবো তাদেরকে পুরস্কিত করা হবে।

২০০৮ হওয়া মুম্বাই হামলার জন্য দোষীদের ধরার জন্য বা দোষসিদ্ধ করার জন্য ৫০ লক্ষ ডলার তথা ৩৫ কোটি টাকা দিয়ে পুরস্কিত করা হবে। আমেরিকা যেনতেন প্রকারে মুম্বাই হামলায় বেঁচে যাওয়া বাকি অপরাধীদের হাতে পেতে যায় এবং এর জন্য ভারতের সাথে এক হয়ে কাজ করতে চাই। যেহেতু আগে ভারতে কংগ্রেস সরকার ছিল তাই কোনো বড়ো পদক্ষেপ নেওয়া হয়নি। তবে এবার ভারতে সরকার রয়েছে যার জন্য আমেরিকা এই ইস্যুতে ভারতের সাথে মিলে কাজ শুরু করবে।

এই কারণে ট্রাম প্রসাশন মুম্বাই হামলার দোষীদের উপর বড়ো পুরস্কার ঘোষণা করে দিয়েছে। মাইক পম্পিও বলেন পাকিস্থানকে বলা হবে আতঙ্কবাদী হামলার জন্য দায়ী লস্কর-ই-তাইআবা ও অন্যান জঙ্গি সংগঠনগুলির উপর নিষেধাজ্ঞা লাগানোর জন্য। পম্পিও বলেন, এটা খুবই দুঃখজনক ব্যাপার যে মুম্বাই হামলার পরিজন হারানো মানুষেরা আজও ন্যায় বিচার পাইনি।

মোদী সরকারের তৎপরতাই আমেরিকা আগে পাকিস্থানকে দেওয়া অর্থ বন্ধ করে দিয়েছে। ের প্রাপ্য বহু কোটি টাকা আমেরিকা আগে থেকে আটকে রেখেছে, এখন মুম্বাই হামলা নিয়ে আরো বড়ো পদক্ষেপ নিতে পারে আমেরিকা।

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.