Press "Enter" to skip to content

হোস্টেল থেকে রাত ১১টার পর বের হওয়া বন্ধ করার কারণে, মহিলা প্রফেসরকে বন্দি বানাল JNU এর পড়ুয়ারা!

নয়া দিল্লীঃ দেশের রাজধানী দিল্লীর জওহরলাল বিশ্ববিদ্যালয় () আরও একবার বিতর্কে চলে এলো। JNUতে পড়ুয়াদের হাঙ্গামা করার মামলা সামনে এসেছে। এর অ্যাসোসিয়েট ডিন বন্দন মিশ্রা () অভিযোগ করে বলেছেন যে, কয়েকজন পড়ুয়া ওনাকে বন্দক বানিয়ে রেখেছে। ছাত্ররা স্কুল অফ ইন্টারন্যাশানাল স্টাডিজ ভবনের রুম থেকে তাঁকে বের হতে দিচ্ছেনা। এটা এর ইতিহাসে আরেকটি কলঙ্ক বলেই মানা হচ্ছে। শোনা যাচ্ছে যে, হোস্টেলের নিয়মের বদল করা নিয়ে পড়ুয়া আর অ্যাডমিনিস্ট্রেশনের মধ্যে বিগত কয়েকদিন ধরেই বাগবিতণ্ডা চলছে।

পড়ুয়ারা হরতালের মুডে আছে। পড়ুয়াদের অভিযোগ অনুযায়ী, JNU প্রশাসন তাঁদের স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ করছে। JNU এর ছাত্র সঙ্ঘ (বাম) জানায়, প্রশাসন হোস্টেলের নিয়মের বদল করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। কিন্তু এই সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে ছাত্রদের থেকে কোন কিছু জিজ্ঞাসা করা, অথবা পড়ুয়াদের সহমতি নেওয়া হয়নি।

বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন চায় যে, হোস্টেল থেকে রাত ১১ টার পর যেন কেউ না বের হয়। এর সাথে সাথে পড়ুয়াদের হোস্টেলে ড্রেস কোড অনুযায়ী ড্রেস পড়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। আর লাইব্রেরীর সময়সীমা বেঁধে দেওয়া হবে। পড়ুয়ারা অভিযোগ করে বলেছে যে, প্রশাসন হোস্টেল কর্মচারীদের মাসিক বেতন পড়ুয়াদের থেকে টাকা নিয়ে দিতে চাইছে।