নারদা কান্ডে ইডির জালে ফাঁসতে চলেছেন তৃণমূল কংগ্রেসের এই বড়ো নেতা?

নারদা কান্ডের তদন্ত অগ্রসর না হওয়ার কারণে যতটা অসন্তুষ্ট প্রকাশ করছেন দেশবাসী ঠিক ততটাই অসন্তোষ প্রকাশ করেছেন স্পেশাল ডিরেক্টর রাকেশ আস্থান। দিল্লির উপর মহলে এই তদন্ত সংক্রান্ত কোনো রিপোর্ট এখনও পাঠানো হয় নি তদন্ত কোমিটির তরফ থেকে। এর ফলে ভর্ৎসনার মুখে পড়তে হয় রঞ্জিত কুমার কে যিনি এই তদন্তের আইও। এবং তদন্তকারী অফিসার অভয় সিং কেও তার দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়। এর ফলেই সিবিআই নারদা মামলার রিপোর্ট হাইকোর্টে জমা দিয়েছেন। এবং তারা দাবি করেছেন যে নারদা মামলার সমস্ত সত্যতা বেরিয়ে আসবে আগামী ৩ মাসের মধ্যেই। সিবিআই এর পক্ষ থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে যে তদন্তের কাজ তারা প্রায় শেষ করে ফেলেছে।

এই সংক্রান্ত একটি রিপোর্ট তারা বিচারক জয়মাল্য বাগচীর কাছে জমা দিয়েছেন এবং তারপর তারা আরও সময় চেয়ে নিয়েছেন আরও একটি রিপোর্ট দেবার জন্য। এখন চেয়ে নেওয়া এই তিন মাস সময়ের মধ্যে এক মাস প্রায় শেষের দিকে। ঠিক এই সময় নুতন মোড় নিল এই মামলা। এবার ইডির পক্ষ থেকে তলব করার জন্য নাম উঠে আসছে তৃণমূল নেতা শুভেন্দু অধিকারির হিসাবরক্ষকের নাম।

এর আগে যখন শুভেন্দু অধিকারিকে এই বিষয়ে তলব করা হয়েছিল তখন তিনি জানিয়েছিলেন, যে টাকা তিনি ম্যাথুর কাছে নিয়েছিলেন তার সমস্তটাই খরচ হয়েছিল নির্বাচনে। তাই এবার শুভেন্দু অধিকারির হিসাবরক্ষকে ডাকা হচ্ছে সেই টাকা কি ভাবে কতটা পরিমানে খরচ নির্বাচনে খরচ হয়েছে সেটা জানবার জন্য। সেই সমস্ত রিপোর্ট ঠিকঠাক ভাবে জানার পরই আগামী পদক্ষেপ নেবে ইডি।

তবে কি এবার আবার এক নামকরা তৃনমূল নেতাকে জেলে ঢোকাতে চলেছে ইডি। তাই এখন শুভেন্দু অধিকারি কে নিয়ে জল্পনা তুঙ্গে। একদিকে যখন তৃণমূলের নেতা মন্ত্রী ও সমর্থকরা মমতা ব্যানার্জীকে ২০১৯ এ প্ৰধানমন্ত্রী পদে দেখতে চাইছে তখন এমন ঘটনা সামনে আসা তৃণমূলের ছবি খারাপ করতে পারে মনে করছে বিশিষ্টমহল।
#অগ্নিপুত্র

Open

Close