Press "Enter" to skip to content

সৌদি আরবে ধরা পড়লো হাজার হাজার জালি পাকিস্তানি ডাক্তার! অবিলম্বে দেশ ছাড়ার নির্দেশ দিল সৌদি সরকার।

কিছু মাস আগে পাকিস্তানের এক যুবক সৌদি আরবে উঠের মূত্রের নাম করে নিজের মূত্র বিক্রি করেছিল। সেই সময় পাকিস্তানিদের ছবি সৌদি আরবে মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে ছিল। আর এখন আবার পাকিস্তানিরা ওই ধরনের কাজ করে খবরের শিরোনামে উঠে এসেছে। ইসলামিক সন্ত্রাসবাদী দেশ পাকিস্তান এমনি কিছুদিন ধরে অনেক ঝটকা খেয়েই চলেছে। উদাহরনসরূপ, সিজফায়ারের নিয়ম ভাঙ্গায় ভারত পাকিস্তানে বোমা বর্ষণ করে, কয়েকজন জঙ্গিকে ভারত শেষ করে দেয়। এছাড়া বিশেষ করে সবচেয়ে বড় ধাক্কা তখন পায় যখন ধারা 370 কে মোদী সরকার সমাপ্ত করে দেয় ইত্যাদি। এতগুলি বড় বড় ঝটকা খাওয়ার পর পাকিস্তান আরেকটি বড় ঝটকা খায় আর এই ঝটকাটি পাকিস্তান আরবের  মুসলিম দেশের থেকেই পেয়েছে। আরবের দেশে অনেক ডাক্তারদের জালি ঘোষিত করা হয়েছে। এদের মধ্যে বেশির ভাগ পাকিস্তানি ডাক্তার সৌদি আরবে আছে। পাকিস্তানের শত শত ডাক্তার সৈদিতে কাজ পায় আর তারা পাকিস্তান থেকে সৌদি ও আশেপাশের আরব দেশে চলে যায় এই ডাক্তারির কাজ করতে থাকে। কিন্তু এবার এরকমই শত শত পাকিস্তানি ডাক্তারের ডিগ্রিকে জালি ঘোষিত করে দেওয়া হয়েছে।

আর যেহুত এই ডাক্তাররা ডাক্তার হওয়ার ভিসা পেয়েছিল। তাই এরা যখন জালি ডাক্তার হিসাবে প্রমাণিত হয়েছে তখন তাদের তৎক্ষনাৎ দেশ ছেড়ে দেওয়ার আদেশ জারি করে দেওয়া হয়েছে।  যদি পাকিস্তানের ডাক্তাররা তাড়াতাড়ি সৌদি আরব না ছাড়ে তবে এদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারের মত পদক্ষেপ নেওয়া হতে পারে আর অপমান করে দেশ থেকে বার করা হবে।

সৌদি আরব বাদে অনেক আরব দেশে পাকিস্তানি মাস্টার অফ সার্জারি এবং মাস্টার অফ মেডিসিনের ডিগ্রিকে অস্বীকার করে দিয়েছে। যতগুলো এরকম পাকিস্তানি ডাক্তার যারা এই দেশগুলিতে এই ডিগ্রি নিয়ে আছে তাদের তৎক্ষনাৎ দেশ ছাড়ার আদেশ দেওয়া হয়েছে। সৌদি আরবের স্বাস্থ্য মন্ত্রালয় বলেছে- পাকিস্তানের ডিগ্রি গুলি বেকার আর সেটি আসলে কোনো কাজেরই নয় এবং সেই ডিগ্রির ডাক্তাররা আসলে ডাক্তারই নয় আর তারা কিছু পারেনা। তাই এরকম অনেক পাকিস্তানি কে দেশ ছাড়ার কথা বলা হয়েছে।

you're currently offline