Press "Enter" to skip to content

বিজেপির দমানোর জন্য মুকুল রায়ের বিরুদ্ধে ছড়ানো হচ্ছে ভুয়ো সংবাদ! কড়া পদক্ষেপ নিতেপারে বঙ্গবিজেপি।

সম্প্রতি কিছু দিন আগে একটি খবরকে কেন্দ্র করে সৃস্টি হয় বিতর্ক। একটি সর্বভারতীয় সংবাদ মাধ্যম তাদের একটি খবরে লিখেছিল যে, ছেড়ে পুনরায় ফিরে যাবেন তৃনমূলে। এই খবর প্রকাশ হবার পরই ভাইরাল হয়ে যায়। স্যোশ্যাল মিডিয়ায় মুহুতে ছড়িয়ে পরে সেই খবর। আর এখানেই বিতর্ক সৃস্টি হয়। রাজ্যের রাজনীতিতে রীতিমত শোরগোল পড়ে যায় এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে। এই ঘটনার সূত্রপাত ঘটে যখন বীজপুরের বিধায়ক শুভ্রাংশু রায় কে হাসপাতালে দেখতে যান মমতা ব্যানার্জি সহ তার ভাইপো অভিষেক ব্যানার্জি। শুভ্রাংশু রায় হঠাৎ অসুস্থতাবোধ করলে তাকে ভরতি করা হয় কলকাতার এক বেসরকারি হসপিটালে সেখানেই তাকে দেখতে যান তৃনমূল নেত্রী মমতা ব্যানার্জি। ফলে মুকুল রায় এর পুত্র কে দেখতে গিয়ে মমতা ব্যানার্জি ও মুকুল রায় একে অপরের কাছাকাছি চলে আসে আর এই সূত্র ধরেই এই মিথ্যা খবরটি প্রচার করা হয়।

তবে বিজেপি নেতা মুকুল রায় এই ঘটনায় খুবই ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। তিনি এর বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যাবস্থা নেবেন বলেও জানিয়ে দিয়েছে। তিনি তার নিজস্ব ট্যুইটারে একটি পোস্ট দিয়ে জানিয়ে দিয়েছেন যে, এই সব কোনো ঘটনাই ঘটে নি। এটি সম্পূর্ণ একটি মিথ্যা ঘটনা। এর বিরুদ্ধে আমি আইনি ব্যাবস্থা নেব বলেও তিনি জানান। এছাড়াও তিনি প্রতিবাদ পত্র পাঠিয়ে দিয়েছেন সেই সংবাদ সংস্থাকে।

বিজেপির পক্ষ থেকে নোটিশ পাঠিয়েও সেই সংবাদ সংস্থাকে প্রতিবাদ জানানো হয়। তার পরই তারা সেই খবরটি মুছে ফেলে। এছাড়াও সেই সংস্থাকে ৪৮ ঘন্টার মধ্যে ক্ষমা চাইতে বলা হয়েছে বিজেপির তরফ থেকে চিঠি দিয়ে। যদি তারা সেটা না করে তাহলে এর বিরুদ্ধে অন্য পথে গিয়ে ব্যাবস্থা নেওয়া হবে বলে জানান রাজ্য বিজেপি।

আসলে অনেকের দাবি বিজেপির বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করা হচ্ছে এবং বড়ো বড়ো নেতাদের নাম খারাপ করার চেষ্টা করা হচ্ছে। যেহেতু ে বিজেপি দিন দিন শক্তিশালী হচ্ছে তাই বিজেপির বিরুদ্ধে গভীর ষড়যন্ত্র করে বিজেপির প্রভাবকে লঘু করার চেষ্টা চলছে। মুকুল রায়ের সাথে সাথে বিজেপি সমর্থকেরাও এই ব্যাপারে ক্ষোপ প্রকাশ করেছেন। এই ধরণের ভুয়ো সংবাদ ছড়ানোর কাজে বড়ো মাথা জড়িয়ে আছে বলে দাবি অনেকের।

#অগ্নিপুত্র