ইসলাম ত্যাগ করে গ্রহণ করলেন সনাতন হিন্দু ধর্ম। বললেন এবার তো …

ফারহা ফাইজ এখন লক্ষ্মী, উনি এখন ইসলাম ত্যাগ করে সত্য সনাতন হিন্দু ধর্মে ফিরে এসেছেন। ফারহা ফাইজ একজন সাহসী মহিলা যিনি কখনো কোনো কোনো কট্টরপন্থী বা কট্টরপন্থার কাছে মাথা নত করেননি। যার প্রমান বহুবার টিভি ডিবেটে দেখতে পাওয়া গেছে। ফারহা ফাইজ এমন একজন যোদ্ধা যিনি অধিকার ও সম্মানের জন্য পুরো জীবন ধরে লড়াই করে এসেছে। এখন তিনি ইসলামকে ত্যাগ করে সনাতন হিন্দু ধর্ম গ্রহন করেছেন যার জন্য একবার পুনরায় খবরের শিরোনামে উঠে এসেছেন। ফারহা এখন নিজের নাম পরিবর্তন করেছেন এবং লক্ষ্মী রেখেছেন। এটা সেই মহিলা যার উপর এক মৌলবী লাইভ টিভি ডিবেট আক্রমণ করে দিয়েছিল । আসলে এই মহিলা শুধুমাত্র অধিকারের দাবিতে মৌলবীর বিরোধ করেছিলেন যার জন্য আক্রমণের শিকার হতে হয়েছিল। এখন যোগী সরকারের মৌলবীর বিরুদ্ধে ব্যাবস্থা নিচ্ছে।

জানিয়ে দি, ফারাহ ফাইজ বর্তমানে লক্ষ্মী নারী শক্তির একটা বড়ো অনুপ্রেরণায় পরিনত হয়েছেন।হাজার মুসলিম মহিলা অধিকারের লড়াই উনার সাথে যুক্ত রয়েছেন। মুসলিম মহিলাদের অধিকারের জন্য বহু বছর ধরে উনি নিজের জীবনকে সমর্পিত করছেন। এক নিউজ পোর্টাল ছাপা খবর অনুযায়ী, এখন হিন্দু ধর্ম গ্রহন করার পর উনি বলেছেন, আমি সনাতন ধর্ম গ্রহন করেছি কারণ যাতে আমি সম্মানিতবোধ করি, কেউ যাতে আমাকে কোনো বস্তু মনে না করে।

সনাতন ধর্মে মহিলাদের পুজো করা হয়, দেবীর জন্য ব্রত রাখা হয়। এই ধর্মে আমি সন্মান পাবো , এই কারণে আমি সনাতন ধর্ম স্বীকার করেছি। সনাতন ধর্ম গ্রহন করার পর লক্ষ্মী বলেন, মৌলবীদের বিরুদ্ধে আমাদের লড়াই জারি থাকবে, আর একদিন নিশ্চয় আমরা মৌলনাদের শিক্ষা দেব এবং মুসলিম মহিলাদেরকে তাদের পাপ্ত সন্মান দেওয়ার ব্যবস্থা করবো।

ফারহা ফাইজ একজন উকিল ও সামাজিক কার্যকর্তা। এমনকি ইনি রাষ্ট্রবাদী মুসলিম মহিলা সঙ্ঘের জাতীয় সভাপতি। যাদের মূল্য উদেশ্য ত্রিপিল তালাকের মতো প্রথা চিরকালের জন্য লুপ্ত করে মুসলিম মহিলাদের অধিকার দেওয়া। এখন ইসলাম ছেড়ে হিন্দু ধর্ম গ্রহন করার ফারাহ ফাইজের জীবনে নতুন মোড় নিলো। অনেকে উনাকে সনাতন হিন্দু ধর্ম গ্রহন করার জন্য স্বাগত জানিয়েছে।

you're currently offline

Open

Close