Press "Enter" to skip to content

ভোপাল রেজাল্ট: হিন্দুত্বের জয়, দিগ্বিজয়কে হারিয়ে সাধ্বী প্রজ্ঞার প্রকাণ্ড জয়।

২০১৯ লোকসভা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে যে আসনগুলো সবথেকে বেশি চর্চায় ছিল সেই আসনগুলির ফলাফল সামনে চলে এসেছে। চর্চিত আসন গুলির মধ্যে মধ্যপ্রদেশের ভোপাল লোকসভা আসন সামিল ছিল। এই আসনে কংগ্রেসের দিগ্বিজয় সিং ও বিজেপির সাধ্বী প্রজ্ঞার লড়াই ছিল। দিগ্বিজয় নিজেকে হেভিওয়েট নেতা মনে করেছিলেন এবং জয়লাভ করবেন বলে দাবি ঠুকেছিলেন। দিগ্বিজয় সিং দু দুবার মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন, তাই নিজেকে হেভিওয়েট নেতা মনে করা খুবই স্বাভাবিক ছিল।

অন্যদিকে সাধ্বী প্রজ্ঞা নতুন রাজনীতিতে নেমেছেন। হিন্দু শব্দকে আতঙ্কবাদের সাথে জুড়ে দেওয়ার যে চেষ্টা হয়েছিল সেটাকে জবাব দেওয়ার জন্য বিজেপি সাধ্বী প্রজ্ঞাকে নামিয়েছে। সাধ্বী প্রজ্ঞা এই প্রথমবার নির্বাচনে অংশ নিয়েছিলেন। ভোপালে ধর্ম ও অধর্মের মধ্যে লড়াই ছিল। সিমী, জাকির নায়েক প্রেমী দিগ্বিজয় বনাম রাষ্ট্রবাদী সাধ্বী প্রজ্ঞার লড়াই ছিল। হিন্দুদের আতঙ্কবাদ বলা দিগ্বিজয়ের বিরুদ্ধে হিন্দুদের হয়ে দাঁড়ানো সাধ্বী প্রজ্ঞার লড়াই ছিল।

আর শেষ অবধি ধর্ম ও অধর্মের লড়াইতে ধর্মের জয় হয়েছে। নির্বাচন সরাসরি হিন্দুত্বের ইস্যুতে হয়েছিল। এমনকি দিগ্বিজয় নিজেকে হিন্দু বলে প্রচার করার জন্য নেমে ছিল। কিন্তু ভোপালে জনতা নিজেদের রায় জানিয়ে দিল এবং সাধ্বী প্রজ্ঞাকে অনেক বেশি ভোটে জিতিয়ে দিল। প্রথমবার নির্বাচনে নাম সাধ্বী প্রজ্ঞা, নিজেকে হেভিওয়েট নেতা মনে করা দিগ্বিজয় সিংকে হারিয়ে দিলেন। এটা সরাসরি হিন্দুত্বের জয় বলেই মনে করা হচ্ছে।