Press "Enter" to skip to content

তিরিশ বছরে এই প্রথমবার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রীর কাশ্মীর সফরে আলগাওবাদীরা বন্ধ ডাকার সাহস দেখালো না

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহ দুই দিনের কাশ্মীর সফরে আছেন। আর এর জন্য সেনা পুরো উপত্যকা কে নিরাপত্তা বলয়ে মুড়ে রেখেছে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী হিসেবে অমিত শাহ এর এটাই প্রথম কাশ্মীর সফর। তিন দশক আগে যা হয়েছিল, এবার অমিত শাহ এর কাশ্মীর সফরে সেটাই হল। তিরিশ বছর আগে, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রীর কাশ্মীর সফরের সময় আলগাওবাদী নেতারা কাশ্মীর বন্ধ ডেকেছিল না। আর এবার অমিত শাহ এর সফরেও সেটাই হল।

অমিত শাহ রাজ্যের নেতা, নাগরিক সমাজ এর প্রতিনিধি এবং পঞ্চায়েত সদস্যদের সাথে বৈঠক করবেন। এছাড়াও অমরনাথ দর্শনেও যাবেন তিনি। উচ্চ স্তরীয় সুরক্ষা বৈঠকে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহ কড়া নির্দেশ দিয়ে জানিয়েছেন যে, তাঁরা যেন উপদ্রবি আর সন্ত্রাসীদের বিরুদ্ধে কড়া নজর রাখে। উনি সমস্ত সুরক্ষা এজেন্সিকে সতর্ক থাকার নির্দেশ দিয়ে জানিয়েছেন যে, ১ লা জুলাই থেকে শুরু হওয়া অমরনাথ যাত্রা হিংসা মুক্ত রাখার জন্য তাঁরা জন্য সমস্ত আবশ্যক পদক্ষেপ নেয়।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের বিদেশ সচিব এপি মাহেশ্বরি বলেন, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহ সুরক্ষা এজেন্সিদের জানিয়েছেন যে, অমরনাথ যাত্রীদের সুরক্ষার দিক থেকে কোন ঢিল যেন না দেওয়া হয়। যেকোন পরিস্থিতিতে এই নির্দেশ পালন যেন করা হয়।

সবথেকে অবাক করা ব্যাপার হল যে, সৈয়দ আলি শাহ গিলানি আর মিরওয়াইজ অমর ফারুক এর নেতৃত্বে হুরিয়ত কনফারেন্স উপত্যকায় এবার কোন বন্ধ ডাকেনি। আবার কোন আলগাওবাদী নেতা কোন বয়ানও জারি করেনি। টাইমস অফ ইন্ডিয়ার রিপোর্ট অনুযায়ী, বিগত তিন দশকের সময়ে কাশ্মীরে কেন্দ্রীয় সরকারের কোন প্রতিনিধি এলেই আলগাওবাদীরা উপত্যকায় বন্ধ ডাকে।

জয়েন্ট রেসিসটেন্স লিডারশীপ গিলা, মিরওয়াইজ আর জম্মু কাশ্মীর লিবারেশন ফ্রন্ট এর প্রধান ইয়াসিন মালিক এর এক যৌথ সংগঠন আছে। এই সংগঠন ৩ রা ফেব্রুয়ারি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর কাশ্মীর সফরের সময় উপত্যকায় বন্ধ ডেকেছিল। এই সংযুক্ত সংগঠন ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৭ সালে কাশ্মীরে তৎকালীন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী রাজনাথ সিং এর সফরের সমেয়ও হরতাল ডেকেছিল। কিন্তু এবার অমিত শাহ এর সফরে সসমস্ত আলগাওবাদী সংগঠন মুখে কুলুপ এঁটেছে।

you're currently offline