Press "Enter" to skip to content

বড় খবর: তিন সেনাকে ফ্রীহ্যান্ড দিলেন প্রধানমন্ত্রী মোদী! এবার হবে বড় একশন..

পাকিস্থান একটা ভুল করেছিল পুলবামা হামলা করিয়ে এখন আর একটা ভুল করে দিয়েছে গতকাল ভারতে f-16 ঢুকিয়ে। যার ফল পাকিস্থানকে ভুগতে হবে এটা নিশ্চিত।
পুলবামা হামলার পর ভারত পাকিস্থানের ভেতর আতঙ্কবাদী ক্যাম্পে করেছিল। ভারত যে এয়ার স্ট্রাইক করেছিল তাতে পাকিস্থানের সাধারণ নাগরিকদের কোন ক্ষতি না সেই দিকে খেয়াল রাখা হয়েছিল। অর্থাৎ এয়ার শুধুমাত্র পাকিস্থানের আতঙ্কবাদ ক্যাম্পে করা হয়েছিল পাকিস্থানের সেনা বা নাগরিকদের কোনো ক্ষতি করা হয়নি। কিন্তু এরপর থেকে পাকিস্থান যে সমস্ত কান্ড ঘটিয়েছে তা ভারতের সহ্য এর সীমা ভেঙে দিয়েছে।

এয়ার স্ট্রাইক হওয়ার পর থেকে পাকিস্থানের সেনা লাগাতার সীমান্তে নিয়ম উলঙ্ঘন করে বোমা বাজি, গোলা বর্ষণ করে ভারতের সীমান্তের গ্রামগুলিকে আক্রমন করার চেষ্টা করেছে। এমনকি তিনটি f-16 নিয়ে ভারতের মধ্যে আক্রমন করার চেষ্টাও করেছিল পাকিস্থানের সেনা। যার জন্য ভারত পুনরায় স্ট্রাইক ব্যাক করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। আর এখন যে বড় সামনে আসছে তা পাকিস্থানের ঘুম উড়িয়ে দিয়েছে।

প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী, প্রধানমন্ত্রী মোদী ভারতের তিন সেনাকে ফ্রী হ্যান্ড দিয়ে দিয়েছেন। অর্থাৎ জল,স্থল ও বায়ুসেনার হাত খুলে দিয়েছেন। ভারত পাকিস্থানের উপর যেকোনো রকমের কার্যবাহী করতে পারে, সেই বিষয়ে তিন সেনাকে খোলাখুলি ছাড় দেওয়া হয়েছে। যারপর পুনরায় পাকিস্থানের প্যানিক সৃষ্টি হয়েছে। পাকিস্থানের করাচিতে প্রশাসনিক এমার্জেন্সি ঘোষনা করা হয়েছে।

Pok এর বড় এলাকা, গিলগিট,ইসলামবাদের ই সেক্টর, লাহোর, সিয়ালককোট এবং সামুদ্রিক সীমার কাছাকাছি এলাকায় পুরো রাত ব্ল্যাক আউট রাখা হয়েছিল। খাইবার পাখতুনখা এলাকায় সমস্থ হাসপাতালগুলিকে এলার্টে রাখা হয়েছে। সমস্থ স্বাস্থ্যকর্মীদের ছুটি বাতিল করে দেওয়া হয়েছে। পাকিস্থানের মধ্যে বড় প্যানিক সৃষ্টি হয়েছে এবং ভারত বড় একশন নেবে সেটা পাকিস্থান আন্দাজ করেছে। পাকিস্থানে ফায়ার ব্রিগেডের নিযুক্তি এবং জলের যোগান চলছে যাতে ভারত আক্রমন করলে ক্ষতির সম্ভাবনা কমানো যায়।

7 Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.