Press "Enter" to skip to content

ব্রেকিং খবর : সই করলেন রাষ্ট্রপতি, এক সপ্তাহে চালু হয়ে যাবে জেনারেলদের ১০ % সংরক্ষণ !

প্রধানমন্ত্রী মোদীর হাত ধরেই বদলাচ্ছে ভারত। যে দেশ শুধুমাত্র জাতি ভিত্তিক সংরক্ষণ এর মধ্যে আটকে ছিল সেই দেশ আজ আর্থিকভাবে দুর্বল জেনারেল বর্গকে ১০% সংরক্ষণ দিতে সক্ষম হয়েছে। লোকসভা ও রাজ্যসভায় জেনারেল সংরক্ষণ বিল পাশ হওয়ার পর এবার রাষ্ট্রপতির সাক্ষর এর মাধ্যমে দেশে কার্যকর হলো এই সংরক্ষণ বিল। SC,ST ও OBC দের সাথে সাথে জেনারেল বর্গের গরিব মানুষদের সংরক্ষণ দেওয়ার অনেক দিনের স্বপ্ন ছিল নরেন্দ্র মোদীর যা এবার পূরণ হলো। আজ দেশের রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের স্বাক্ষর এর পরেই পুরো দেশ জুড়ে এই আইন লাগু হলো। মোদী সরকার এই বিল সহজে পাশ করানোর জন্যেই লোকসভা নির্বাচনের ঠিক আগেই এই বিল দুই সদনে পেশ করেছিল। সামনে নির্বাচন থাকায় কোনো পার্টি বিলের বিরুদ্ধে যেতে পারেনি।

দেশের প্রত্যেক পার্টি ভোট ব্যাঙ্ক ধসে পড়ার ভয়ে এই বিলের সমর্থনে লোকসভায় ও রাজ্য সভায় ভোট প্রদান করে। যার জেরে বিল দুই সদনেই পাশ হয়ে যায়। লক্ষণীয় বিষয় এই যে মোদী সরকার এই বিল আর্থিক অবস্থার উপর ভিত্তি করে তৈরি করেছে। অর্থাৎ জেনারেল বর্গের যে সমস্থ মানুষ আর্থিকভাবে দুর্বল তারাই এই সুবিধা পাবে।

জাতি গত সংরক্ষণ নয়, বরং আর্থিকদিক বিবেচনা করে সরকার এই আইন পাশ করিয়েছে যা দেশের ভবিষ্যতের জন্য খুবই বড় একটা পদক্ষেপ। রাষ্ট্রপতির স্বাক্ষর এর মাধ্যমে বিল পাশ হয়ে গেলেও কেজরিওয়াল ও প্রশান্ত ভূষণের এক সংস্থা এই বিলের বিরুদ্ধে সুপ্রিম কোর্টে পিটিশন দায়ের করেছে বলে সূত্রের খবর। যদিও এই পিটিশন বিলের বিরুদ্ধে কার্যকরী হবে না বলেই মত বিশেষজ্ঞদের।

এবার থেকে জেনারেল বর্গের গরিব মানুষ শিক্ষা থেকে চাকরি সবক্ষেত্রেই ১০ শতাংশ সংরক্ষণ এর সুবিধা পাবে। সংবিধানে ১৫ নাম্বার ধারা সংশোধন হওয়ার পর সরকারি চাকরি, উচ্চ শিক্ষা সবক্ষেত্রেই সাধারন বর্গের মানুষ ১০% ছাড় পাবে। তবে এই আইন আজ রাত থেকেই লাগু হয়ে যাবে।এই ছাড়ের জন্য পরিবারের বার্ষিক আয় ৮ লক্ষের মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকতে হবে। সাধারণ বর্গের পরিবারের জমি ৫ একরের মধ্যে থাকলেও এই সুবিধা প্রদান করা হবে।

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.