আজ থেকে এই বিজেপি শাসিত রাজ্যে চালু হয়ে গেল উচ্চবর্ণের সংরক্ষণ !

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী দেশের গরিব উচ্চ বর্ণের কথা ভাবে তাদের জন্য সংরক্ষণ বিল আনেন। সবদিক বিচার বিবেচনা করে এই সংরক্ষণ বিলে স্বাক্ষর করেন দেশের রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ মহাশয়। উনি গত শনিবার এই বিলে স্বাক্ষর করেন। আর এই সংরক্ষণ বিল প্ৰথম রাজ্য হিসাবে লাগু করল দেশের অন্যতম উন্নয়নশীল রাজ্য গুজরাট। গুজরাটে এর বিল লাঘু হয়েছে গতকাল অর্থাৎ রবিবার।বিজয় রুপানি যিনি হলেন গুজরাটের মুখ্যমন্ত্রী উনি এইদিন সাংবাদিক সম্মেলন করে জানিয়ে দিয়েছেন রাজ্যের সমস্ত উচ্চবর্ণের দুঃস্থদের জন্য এই বিল চালু করা হবে আগামী ১৪ ই জানুয়ারি ২০১৯ সাল থেকে। সমস্ত শিক্ষাক্ষেত্রে এবং সরকারি চাকুরিতে এই প্রস্তাব গ্রাহ্য করা হবে। উল্লেখ্য গুজরাটে পাবলিক সার্ভিস পরীক্ষা হতে চলেছে আগামী ২০ ই জানুয়ারি থেকে আর সেই জন্যই গুজরাট সরকার এই নিয়ম চালু করে দিলেন তাড়াতাড়ি।

বলে রাখি, কয়েকমাস আগে গুজরাট উত্তাল হয়ে উঠেছিল পটেলদের সংরক্ষনের দাবিতে। পতিদার আন্দোলনের নেতা হার্দিক পটেল কংগ্রেস কে সমর্থন করেছিল বিধানসভা নির্বাচনে।কিন্তু রাজ্য সরকারের এই জনকল্যাণমূলক সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করেছেন গুজরাটের প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অমিত ছোবড়া। উনার দাবি এত তাড়াহুড়ো করে নিয়ম লঘু করার কোনো মানে হয় না। মুখ্যমন্ত্রী কেন হটাৎ এত তাড়াহুড়ো করে নিয়ম লঘু করলেন এতে বিভ্রান্তি সৃষ্টি হবে।

এই বিল মোদী সরকার এনেছেন দেশের সাধারণ মানুষের কথা ভেবে। এর আগে কোনো সরকার উচ্চ বর্ণের গরিবদের কথা ভাবেন নি। স্বাধীনতার পর এই প্রথমবারের জন্য কোনো সরকার গরিবদের কথা ভেবে সংরক্ষণ বিল চালু করলেন।

এই বিল প্রথমে লোকসভার পাস হয় তারপর রাজ্যসভায়। দুই জায়গাতেই সর্বসম্মতি পায় এই বিল। এরফলে খুব সহজেই রাষ্ট্রপতি স্বাক্ষর করে দেন। এবং সমগ্র দেশজুড়ে লঘু হয়ে যায় উচ্চ বর্নের দুঃস্থদের জন্য ১০ শতাংশ সংরক্ষণ।
#অগ্নিপুত্র

Leave a Reply

you're currently offline

Open

Close