Press "Enter" to skip to content

কাশ্মীর থেকে ধারা ৩৭০ মুছতে দেব না, কাশ্মীর আজাদ হবেই!:গুলাম নবী আজাদ, কংগ্রেস নেতা।

কাশ্মীর থেকে ধারা ৩৭০ হাটানো নিয়ে আরো একবার বিতর্কিত মন্তব্য সামনে এসেছে। কংগ্রেসের নেতা গোলাম নবী আজাদ কাশ্মীর ইস্যুতে বড় মন্তব্য করেছেন যে নিয়ে বিতর্ক তুঙ্গে। কংগ্রেসের বড় নেতা গুলাম নবী আজাদ বলেছেন, বিজেপি যদি ২০০ বছর রাজত্ব করে তাও কাশ্মীর থেকে ধারা ৩৭০ মুছে ফেলতে দেব না। বিজেপি তাদের মানুফেস্ট তথা সংকল্পপত্রে জানিয়েছে যে তদের সরকার পুনরায় আসলে কাশ্মীর থেকে ধারা ৩৭০ মুছে ফেলা হবে। জানিয়ে দি, এই ধারা কাশ্মীরে লাগু থাকার কারণেই সেখানে আতঙ্কবাদ ছড়াতে সুবিধা পায় কট্টরপন্থী ইসলামিক জিহাদিরা।

বিজেপি এখন সেই ধারাকে মুছে ফেলার পতিশ্রুতি দিয়েছে। তবে জম্মুকাশ্মীরের পিডিপি ও রাষ্ট্রীয় দল কংগ্রেস ধারা ৩৭০ মুছে ফেলতে কোনো ভাবেই রাজি নয়। কংগ্রেস উল্টে তাদের ঘোষণা পত্রে জানিয়েছে যে, তারা ক্ষমতায় এলে কাশ্মীরে সেনাকে যে বিশেষ গ্রেপ্তারি ক্ষমতা দেওয়া হয় সেটা বাতিল করা হবে। সোজা কথায় কংগ্রেস কাশ্মীরে সেনার হাত বেঁধে দিতে চাই।

এখন ধারা ৩৭০ নিয়ে কংগ্রেস তাদের নীতি নিয়ে সামনে এসেছে। গোলাম নবী আজাদ জানিয়েছেন যে কংগ্রেস পার্টি থাকতে কোনোভাবেই ধারা ৩৭০ মুছতে দেওয়া হবে না। স্পষ্ট যে, কাশ্মীরকে আলাদা করার জন্য যে জিহাদ চলছে পরোক্ষভাবে তা বজায় রাখতে ও জিহাদিদের সাহায্যর ঘোষণা করতে এই ঘোষণা করেছে কংগ্রেস। গুলাম নবী আজাদ তার কথার মাধ্যমে বুঝিয়ে দিয়েছেন যে কংগ্রেস পার্টি থাকলে কাশ্মীর আজাদ হবেই।

এতদিন অবধি ন্যাশনাল কনফারেন্স ও পিডিপি পার্টির পেছনে থেকে ব্যাটিংয়ে নেমেছিল কংগ্রেস পার্টি। আর এখন সরাসরি সামনে থেকে মাঠে নেমে এসেছে কংগ্রেস পার্টি। গুলাম নবী আজাদ কাশ্মীরের অনন্তনাগ থেকে বলেছেন যে ধারা ৩৭০ কেউ স্পর্শও করতে পারবে না। এর আগে মেহবুবা মুফতি ও ফারুখ আব্দুল্লাহ ধারা ৩৭০ নিয়ে দেশকে ভাঙার হুমকি দিয়েছেন। তখন বিজেপি দাবি করেছিল যে এসবের পেছনে কংগ্রেসের হাত আছে। আর এখন সত্যি করেই কংগ্রেস পার্টি তাদের অবস্থান সাফ জানিয়ে দিয়েছে। পশ্চিমবঙ্গে যেমন রাজনৈতিক লড়াই NRC নিয়ে শুরু হয়েছে। তেমনি কাশ্মীরে ধারা ৩৭০ নিয়ে রাজনৈতিক লড়াই শুরু হয়েছে।

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.