Press "Enter" to skip to content

ইতিহাসে এই প্রথমবার কোনো প্রধানমন্ত্রীকে এইভাবে সন্মান জানালো গুগল।

গতকাল ৭২ তম স্বাধীনতা দিবস পালন করলো দেশের । লালকেল্লা থেকে দেশবাসীর উদ্যেশে এক স্মরণীয় ভাষণ দিয়েছেন । ইতালির সোনিয়া গান্ধী(আসল নাম আন্তোনিয়া মিয়ানো) এর হাত থেকে দেশের ক্ষমতা এসেছে গরিব মায়ের ছেলে নরেন্দ্রভাই দামোদরদাস মোদীর হাতে। সেই অর্থে দেশবাসীর কাছে লালকেল্লা থেকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ভাষণ স্বাধীনতার আনন্দ আরো বাড়িয়ে তোলে। তবে শুধু দেশ নয় বিদেশের সচেতন মানুষেরাও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ভাষণ শোনার জন্য উদ্বুদ্ধ হয়েছিল।

জানলে অবাক হবেন,গুগল পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ভাষণ নিয়ে উৎসাহিত ছিল। গতকাল লালকেলা থেকে প্রধানমন্ত্রী ভাষণ পুরো বিশ্বের কাছে পৌঁছে দেওয়ার জন্য ও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে সন্মান দেওয়ার জন্য বিশেষ ব্যবস্থা করেছিল। গুগল হোমপেজ থেকে শুরু করে ইউটিউবে লাইভ স্ট্রিমড করা হয়। গুগল জানিয়েছিল এটা বিশ্বের অন্যতম গ্রেটার ভিসিবল ইভেন্ট যা পুরো বিশ্বের কাছে পৌঁছে দিতে এই উদ্যেগ নেওয়া হয়েছে।

প্রসার ভারতীয় তফরেও জানান হয়েছে একই মন্তব্য করে প্রধানমন্ত্রীর প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়েছে। প্রসার ভারতীয় CEO জানিয়েছেন প্রতি বছর এই অনুষ্ঠান বিশ্বের প্রায় ২ মিলিয়ন মানুষ দেখেন আর সেই কারণেই প্রসার ভারতী গুগলের সাথে জোট করেছে। দেশের স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে গতকাল পুরো দিন গুগল ডুডলে রাখা হয়েছিল উপরের ছবিটি। ছবিটিতে ময়ূর, বাঘ, সিংহ,পদ্মফুলের ছবি দিয়ে বৈচিত্র্যময় ভারতবর্ষের ছবি ফুটিয়ে তোলার চেষ্টা করা হয়েছিল।

মনে করা হচ্ছে এই প্রথম কোনো ভারতীয় প্রধানমন্ত্রীর জন্য এই ব্যবস্থা করেছে গুগল কর্তৃপক্ষ। প্রধানমন্ত্রী পদে বসার পর থেকে বিশ্বে একজন দাপুটে ও সুবক্তা হিসেবে পরিচিত পেয়েছেন নরেন্দ্র মোদী। আর লালকেল্লা থেকে প্রধানমন্ত্রীর ৮২ মিনিটের এই ভাষণ গোটা বিশ্বের কাছে পৌঁছে দিতে এবার এই পদক্ষেপ নিলো গুগল। এর আগে আমেরিকার রাষ্ট্রপতি ট্রাম্পের শপদ গ্রহণের সময় লাইভ স্ট্রীমিং এর ব্যবস্থা করে উনাকে সন্মান জানিয়েছিল গুগল।