Press "Enter" to skip to content

পাঁচ আগস্টের পর কাশ্মীর থেকে পাঁচ হাজার আলগাঁওবাদী আর পাথরবাজদের গ্রেফতার করা হয়েছে

নয়া দিল্লীঃ কেন্দ্র সরকার বুধবার জানায় যে, জম্মু কাশ্মীর থেকে ৩৭০ ধারা তুলে দেওয়ার পর রাজ্যে শান্তি ভঙ্গের আশঙ্কার কথা মাথায় রেখে ৫১৬১ জন আলগাঁওবাদী আর পাথরবাজদের গ্রেফতার করা হয়েছে।  গৃহ রাজ্যমন্ত্রী জি কিষাণ রেড্ডি রাজ্যসভায় একটি প্রশ্নের জবাবে বলেন, ‘চার আগস্ট ২০১৯ থেকে কাশ্মীরে শান্তি ভঙ্গ করা দুষ্কৃতীদের দেশের সুরক্ষার জন্য ক্ষতিকর গতিবিধি গুলোকে থামানোর জন্য এবং রাজ্যে আইন শৃঙ্খলা কায়েম রাখার জন্য ৫১৬১ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাঁদের মধ্যে পাথরবাজ, জঙ্গি আর জঙ্গিদের প্রত্যক্ষ ভাবে সহয়াতা করা ব্যাক্তি, আলগাওবাদী, দুষ্কৃতী এবং রাজনৈতিক ব্যাক্তিরাও ছিল।” গৃহ রাজ্য মন্ত্রী জি কিষাণ রেড্ডি বলেন, জম্মু কাশ্মীরে আপাতত ৬০৯ জন মানুষ হেফাজতে আছে। আর তাঁদের মধ্যে প্রায় ২১৮ জন পাথরবাজ শামিল আছে।

আরেকটি প্রশ্নের জবাবে গৃহ রাজ্যমন্ত্রী জি কিষাণ রেড্ডি সংসদে বলেন, জম্মু কাশ্মীরে সমস্ত স্কুল এবং কলেজ খুলে দেওয়া হয়েছে। আর এই স্কুল এবং কলেজে ৯৮ শতাংশ পড়ুয়ারা উপস্থিত থাকছে। গৃহ রাজ্য মন্ত্রী জি কিষাণ রেড্ডি জানান, জম্মু কাশ্মীরে সমস্ত হাসপাতাল এবং স্বাস্থ সেবা কেন্দ্র আগের মতই বিনা কোন বাধায় চলছে।

গৃহ রাজ্যমন্ত্রী জি কিষাণ রেড্ডি বলেন, ‘জম্মু কাশ্মীর সরকার তথ্য দিয়েছে যে, প্রাথমিক নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার পর থেকে রাজে সমস্য স্কুল এবং কলেজ খুলে গেছে।” গৃহ রাজ্যমন্ত্রী জি কিষাণ রেড্ডি বলেন, বর্তমানে দশম এবং দ্বাদশ শ্রেণীর পরীক্ষা চলছে, এছাড়াও স্কুল এবং কলেজে ৯৮ শতাংশ পড়ুয়ারা উপস্থিত থাকছে। উনি এও স্পষ্ট করে বলেন যে, উপত্যকায় পড়ুয়াদের গতিবিধিতে কোন নিষেধাজ্ঞা নেই। মন্ত্রী বলেন, এছাড়াও রাজ্যের সমস্ত হাসপাতাল এবং স্বাস্থ কেন্দ্র গুলো খুলে গেছে। আর সমস্ত স্বাস্থ পরিষেবা বিনা কোন বাধায় প্রদান করা হচ্ছে।