Press "Enter" to skip to content

ব্রেকিং খবরঃ ভেঙে যেতে চলেছে কর্ণাটকের সরকার, মধ্যপ্রদেশেও একই অবস্থা!

লোকসভা নির্বাচন ২০১৯ এর এক্সিট পোলে (Exit Poll) NDA কে সম্পূর্ণ সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেতে দেখা যাচ্ছে। আর এরপর থেকেই মধ্যপ্রদেশ এবং কর্ণাটকে রাজনৈতিক উথাল পাথল শুরু হয়ে গেছে। এক্সিট পোল অনুযায়ী ২৩ শে মে এর পর দেশে আবার মোদী সরকার গঠন হতে চলেছে। আর ফলাফলের একদিন আগেই মধ্যপ্রদেশ এবং কর্ণাটকের কংগ্রেস সরকার গলায় তলোয়ার ঝুলছে।

কর্ণাটকের জনতা দল সেকুলার (JDS) আর কংগ্রেসের জোট সরকারের উপর চরম অশনি সঙ্কেত দেখা দিয়েছে। দেশের জনতার মুড দেখে কর্ণাটকের মুখ্যমন্ত্রী কুমারস্বামী (Kumaraswamy) দিল্লী সফর স্থগিত করে দিয়েছে। আরেকদিকে কংগ্রেস নেতা রোশন বেগের গলাতেও বিক্ষোভের সূর। উনি রাজ্য কংগ্রেসের পর্যবেক্ষক কে.সি বেনুগোপাল কে ‘মোষ” বলে কটাক্ষ করেছেন। উনি কংগ্রেসের উপর আক্রমণ করে বলেন, আমার রাহুল গান্ধীর উপর দয়া হয়। এক্সিট পোলের পরিসংখ্যান আসার পর রোশন বেগ কর্ণাটকের প্রাক্তন কংগ্রেসের মুখ্যমন্ত্রী সিধারামাইয়াকে আক্রমণ করে বলেন, এটা ওনার অত্যাধিক অহংকারের জন্য হয়েছে।

বেগ রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী সিধারামাইয়ার সমালোচনা করে বলেন, উনি নিজে কখনো চাননি যে এই জোট বেশিদিন টিকুক। উনি কুমারস্বামীকে মুখ্যমন্ত্রীর চেয়ারে দেখতে চাননা। কুমারস্বামীকে কাজও করতে দেওয়া হয়না। উনি বলেন, কোন খ্রিষ্টান কে কংগ্রেস প্রার্থী করেনি। আরেকদিকে শুধুমাত্র একজন মুসলিমকে প্রার্থী করা হয়েছে। উনি বলেন, এরকম কাজের জন্য আমি অন্তর থেকে আঘাত পেয়েছি।

২২৫ আসনের কর্ণাটক বিধানসভায় বিজেপির কাছে ১০৪ টি আসন। জেডিএস এর কাছে ৩৭ আর কংগ্রেসের দখলে ৭৮ টি আসন। একজন বহুজন সমাজ পার্টির বিধায়ক জোট সরকারের সাথে আছে।