Press "Enter" to skip to content

হরিশ সালভে: ভারতের দামী উকিল যিনি ১ টাকার বিনিময়ে ইন্টারন্যাশনাল কোর্টে পাকিস্তানের মুখে ঝামা ঘষে দিয়েছেন।

হরিশ সালভে ভারতের ইন্টারন্যাশনাল কোর্ট অফ জাস্টিসে (ICJ) কুলভূষণ যাদবের মামলা লড়েছেন এবং উনার ফাঁসি আটকে দিয়েছেন। হারিশ সালভে দেশের সবথেকে দামি উকিল। উনি এক মারাঠি পরিবারে জন্ম নিয়েছিলেন এবং সুপ্রিমকোর্টে সলিসিটার জেনারেল ছিলেন। হরিশ সালভে মূলত মহারাষ্ট্রের নাগপুরের বাসিন্দা, উনার বাবা চাটার্ড একাউটেন্ট  হিসেবে খ্যাত। হারিশ সালভের দাদু ও ঠাকুমা দুজনেই উকিল ছিলেন। আর সেই থেকেই উনিও উকিল হওয়ার অনুপ্রেরণা পেয়েছিলেন।

হরিশ সালভে চাটার একাউন্টেন (CA) পড়ার চেষ্টা করেছিলেন কিন্তু ব্যার্থ হয়েছিলেন। এরপর উনি উনার ঠাকুমার সাথে ট্যাক্স লয়ার প্রাকটিস করতে শুরু করেন। ১৯৯২ সালে উনি বরিষ্ঠ উকিলে পরিণত হন এবং ১৯৯৯ সালে সলিশিটার জেনারেলে পরিণত হন।  হরিশ সালভে এখনও পর্যন্ত বহু হাই প্রোফাইল মামলার উকিল ছিলেন। ভোডাফোনের ১৪ হাজার টাকার ট্যাক্স চুরি মামলায় উনি কোম্পানির তরফে লড়েছিলনে এবং জয়লাভ করেছিলেন।

দুই আম্বানি ভাইয়ের মধ্যে রিলায়েন্স গ্যাস ইস্যুতে হওয়া বিতর্কে উনি মুকেশ অম্বানির সাথে ছিলেন। কেশব মাহিন্দ্রা ও ৭ অফিসারের বিরুদ্ধে যে মামলা দায়ের হয়েছিল সেক্ষত্রেও উনি মামলা কেশব মাহিন্দ্রার পক্ষ নিয়ে মামলা জিতেছিলেন। ২০১৫ সালের হিট এন্ড রান মামলায় হারিশ সালভে, সালমান খানের হয়ে আদালতে লড়াই করে উনাকে জামিন পাইয়ে দিয়েছিলেন। হরিশ সালভের উকালতির ফিস খুব বেশি। উনি একটা শুনানির ৩০ লক্ষ টাকা পর্যন্ত নেন।