Press "Enter" to skip to content

ভারতে এখন মনমোহন নয়, মোদীরাজ চলছে! ভারতকে ধমকি দেওয়া মানে নিজেদের সর্বনাশ করা: পাক বুদ্ধিজীবী।

মোদী, পাকিস্থানকে অশিক্ষা ও গরিবীর সাথে লড়াই করার জন্য আমন্ত্রণ করেছিল কিন্তু পাকিস্থান ইসলামের নাম নিয়ে এখনো আতঙ্কবাদ ছড়াতে ব্যাস্ত। যার জন্য পাকিস্থান এখন পুরো বিশ্বের কাছে হাত পেতে ভিক্ষা করতে শুরু করেছে। সম্পুর্ন ভিখারী দেশে পরিণত হয়েছে পাকিস্থান। একটা ড্যাম্প তৈরির জন্য পাকিস্থান জনগণের কাছে হাত পাততে শুরু করেছে। মোদী বিশ্বের কাছে পাকিস্থানকে পুরো ভেঙেচুরে দিয়েছে। এরপরেও পাকিস্থান শোধরানোর নাম নিচ্ছে না। বিগত দিনে পাকিস্থান ভারতকে যুদ্ধের হুমকি পর্যন্ত দিয়ে ফেলেছে। পাকিস্থানের প্রধানমন্ত্রী ইমরাম খান টুইটারে মোদীকে গালিগালাজ পর্যন্ত করছে। কিছুদিন আগে পাকিস্তান নিয়মের উলঙ্ঘন করে এক BSF এর হত্যা পর্যন্ত করে দিয়েছিল।

যারপর মোদী পাকিস্থানের ডাকা ভারত-পাকিস্থান বার্তা বাতিল করেছিল। অন্যদিকে রাজনাথ সিং BSF জওয়ানাদের খোলাখুলি ছাড় দেওয়া রামগড় সীমান্তে পাকিস্থান রেঞ্জার্সদের উপর হামলা চালিয়ে ১২ জনকে হত্যা করে দেয়। পাকিস্থান আপাতত BSF এর রুদ্ররূপ দেখে সীমান্তের ৫ কিমি এলাকা পর্যন্ত খালি করাতে ব্যাস্ত হয়ে পড়েছে। কারণ রাজনাথ সিং আরো কিছু ঘটানোর সংকেত দিয়েছেন। পাকিস্থানের ধর্মীয় কট্টরপন্থার কারণে বেশিরভাগ লোকজন সংকীর্ন মানসিকতার। কিন্তু সবজায়গায় কিছু কিছু ব্যাক্তি পরিস্থিতি বোঝার ক্ষমতা রাখে।

পাকিস্থানেও এই ধরণের ব্যাক্তি রয়েছে। পাকিস্থানে এমনি এক বুদ্ধিজীবী রয়েছে যার নাম হাসান নিসার। হাসান নিসার পাকিস্থানের সেনা ও ইমরান খানের উদেশ্য বলেছেন, আর নিজের দেশের ক্ষতি করবেন না, এমনিতেই আমরা অনেক নীচে আছি। এখন ভারতে মনমোহন সিং নেই বরং মোদী আছে। হাসান নিসার আরো বলেন, পাকিস্থানের কিছু লোক আছে যারা কিছু না বুজে শুনে মুখ খুলে ফেলেন, এদের উচিত একটু ভেবেচিন্তে নিজেদের মুখ খোলা উচিত।

হাসান নিসার বলেন, এই মুহূর্তে ভারতের সাথে টক্কর নেওয়া আমাদেরই বিপদে ফেলবে কারণ এখন ভারতে মোদীরাজ চলছে। মনমোহন সিং এখন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নয় এটা পাকিস্থানের মনে রাখা উচিত বলে সাবধান করেন এই পাক বুদ্ধিজীবী। হাসান নিসার নাম না নিয়ে পাকিস্থানের মন্ত্রীদের মুখ খুলতে বন্ধ করেন কারণ তারা নিজেদের বিপদ নিজে ডেকে আনছে।