Press "Enter" to skip to content

ব্রেকিং খবরঃ পাগল হয়ে সীমান্তে ফের যুদ্ধ বিরতি লঙ্ঘন করল পাকিস্তান, বিএসএফ এর পালটা হামলায় খতম এক পাক রেঞ্জার

ভারতীয় বায়ুসেনার তরফ থেকে জঙ্গিদের প্রশিক্ষণ শিবির ধ্বংস করে দেওয়ার পর পাগল হয়ে যাওয়া পাকিস্তান এলওসিতে চরম গোলাগুলি করে। পাকিস্তানের গোলাগুলিতে দেশের ছয় জওয়ান আহত হন। তবে ভারত ও চুপ করে বসে থাকার পাত্র নয়, সেটা আশাকরি সবাই জেনে গেছি।

পাকিস্তানি সেনা সীমান্ত লাগোয়াবর্তি সেনা ছাউনিতে নিশানা করার সাথে সাথে জনবসতি পূর্ণ এলাকা গুলোতেও চরম গোলাগুলি চালায়। পাকিস্তানের এই আক্রমণের পরে সেনা সীমান্তের পাঁচ কিমিতে থাকা সমস্ত স্কুল গুলোকে বন্ধ করার নির্দেশ দেয়।

সীমান্তে পাকিস্তানের যুদ্ধ বিরতি লঙ্ঘনের ফলে ভারতের ছয় জওয়ান আহত হন। আহতদের মধ্যে সিপাহী জ্যোতিষ যাদব, সিপাহী রাহুল কুমার যাদব, ল্যান্স নায়েক তরাইদিপ চৌধুরী, সিপাহী আজহারউদ্দিন, সিপাহী অজয় সিং এবং সিপাহী অশোক চৌধুরী ছিলেন।

আহত সমস্ত জওয়ান সেনার ৫২ মিডিয়ামের জওয়ান ছিলেন। সবাইকে এয়ারলিফট করে আখনুরের সেনা হাসপাতালে আনা হয়। সেখানে ওনাদের চিকিৎসা চলছে, এবং ওনারা এখন আশঙ্কার বাইরে।

পাকিস্তান বিকেলের দিক থেকে পুঞ্ছ জেলার বালাকোট সেক্টরে অনেক গ্রাম এবং সেনার ছাউনিতে গুলি চালানো শুরু করে। পাকিস্তান মঙ্গলবার বিকেল ৪টে নাগাদ নৌসেরা সেক্টরে যুদ্ধ বিরতি লঙ্ঘন করে। ভারতের তরফ থেকে মোক্ষম জবাব পাওয়ার পর প্রায় আধ ঘন্টা পর পাকিস্তানের বন্দুক শান্ত হয়ে যায়। সন্ধ্যে ৬টা নাগাদ পাকিস্তান নৌসেরা সেক্টরে আবার গোলাগুলি শুরু করে দেয়!

কিন্তু জম্মু কাশ্মীরের কানা চক সেক্টরে যুদ্ধ বিরতি লঙ্ঘন করা পাকিস্তানের হিতে বিপরিত হয়ে যায়। বিএসএফ এর ৮৯ ব্যাটালিয়ন এর পালটা হানায় এক পাকিস্তানি রেঞ্জার খতম হয়, ওই রেঞ্জার পাকিস্তানের চিনাও রেজিমেন্টের ছিল বলে জানা যায়।

10 Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.