Press "Enter" to skip to content

কট্টরপন্থীর হাত থেকে হিন্দু নাবালিকাকে উদ্ধার করলো পুলিশ! অপহরণ করে মেয়েটিকে রেখেছিল নাসিকের হোটেলে।

আগে শুধুমাত্র পাকিস্তান বাংলাদেশ থেকে লাভ জিহাদ, রেপ জিহাদের সামনে আসতো। কিন্তু এখন ভারতেও এই ধরনের ঘটনা সামান্য হয়ে উঠেছে। প্রায় প্রত্যেকদিন দেশের কোনো না কোনো প্রান্ত থেকে লাভ জিহাদ, রেপ জিহাদের আসছে। অবশ্য দালাল মিডিয়া এই ধরনের গোপন রাখতেই বেশি পছন্দ করে। অন্যদিকে ভারতের সেকুলারদের মতে লাভ জিহাদ, রেপ জিহাদ বলে কোনো বস্তু হয় না। তবে এখন যে কোনো সচেতন মানুষ লাভ জিহাদ, রেপ জিহাদ সম্পর্কে অবগত। এখন দেশজুড়ে এই ধরনের জিহাদের স্তর চরমে পৌঁছে গেছে। কিছু কিছু ক্ষেত্রে হিন্দু মেয়েদের হত্যা করে দেওয়াও হচ্ছে। এমনকি মেয়েদের বিক্রি করার ঘটনাও সামনে আসছে।

এখন একটা খবর ের জমুনামুখ থেকে আসছে। সেখানে মহম্মদ জাভেদ আহমেদ নামের ব্যাক্তি এক হিন্দু নাবালিকাকে অপহরণ করেছিল। ১২ ই জুন কট্টরপন্থী হিন্দু নাবালিকাকে অপহরন করেছিল। নাবালিকা ১২ ই জুন থেকে নিখোঁজ ছিল, পুরো এলাকায় খোঁজ চালানোর পরেও মেয়েটির কোনো খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না। এরপর পুলিশের কাছে মামলা পৌঁছালে তদন্ত শুরু হয়। আর এখন ের পুলিশ ওই নাবালিকাকে মহম্মদ জাভেদ আহমেদের কব্জা থেকে উদ্ধার করেছে।

মহারাষ্ট্রের নাসিকের এক হোটেল থেকে ওই নাবালিকাকে উদ্ধার করা হয়েছে। এই খবর অসমের মন্ত্রী হেমন্ত বিশ্ব শর্মা নিজে দিয়েছেন। মহম্মদ জাভেদ আহমেদ  নাবালিকাকে অপহরণ করে মহারাষ্ট্র নিয়ে গিয়ে এক হোটেলে রেখেছিল। হোটেলে এতদিন রেখে মেয়েটির সাথে কি করা হয়েছে তার অনুমান যে কেউ করতে পারবে। তবে পুলিশ তদন্ত করে মেয়েটিকে উদ্ধার করেছে যার জন্য অসমের পুলিশ প্রশংসা পাওয়ার যোগ্য।