VIP টয়লেটে লাগানো ছিল হিন্দু দেবদেবীর ছবি!সাহসী হিন্দু মহিলার প্রতিবাদে নড়েচড়ে বসলো হিন্দু বিরোধীরা।

আরো একবার চূড়ান্ত হিন্দু বিরোধী কাজ সবার সামনে এলো যা সোশ্যাল মিডিয়ায় চর্চার বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে। যদিও এক সাহসী হিন্দুর জন্য হিন্দু সমাজের আত্মমর্যাদা বজায় রয়ে গিয়েছে। সম্প্রতি একটা ঘটনা সকলের সামনে চলে এসেছে। যা সমগ্র বিশ্বের হিন্দুদের প্রভাবিত করেছে। প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী, নিউইয়কে অর্থাৎ আমেরিকা দেশে অবস্থিত একটা বড়ো শহরে বড়ো পব হাউসের ভিআইপিদের জন্য যে স্পেশাল টয়লেট থাকে সেই টয়লেটের গায়ে লাগানো ছিল হিন্দু দেবদেবীর ফোটো। হিন্দু দেবদেবীর অপমানিত করার জন্যই এই ধরনের কাজ করেছিল হিন্দু বিরোধীরা।

সেই পাবে গিয়েছিলেন আমেরিকায় বসবাসকারী এক ভারতীয় হিন্দু মহিলা। সেই হিন্দু মহিলার প্রতিবাদের জেরেই পাবের মালিক টয়লেট থেকে হিন্দু দেবদেবীর সরাতে বাধ্য হয়। জানিয়ে দি, সেই ভারতীয় হিন্দু মহিলার নাম অঙ্কিতা মিশ্র। উনি নিউইয়র্ক এর সেই পাবে কিছু দিন আগে গিয়েছিলেন। আমেরিকার বিভিন্ন বড়ো বড়ো ব্যবসায়ীরা আমেরিকার ওই পাবে যান। রাত পর্যন্ত নাচ গান পার্টি করেন। সেই জন্যই অঙ্কটা দেবীও ওই দিন নিমন্ত্রণ পেয়ে সেখানে যান।

সেখানে পার্টি করতে গিয়ে অনেক রাত হয়ে যায়। তাই কিছুটা রেস্ট নেওয়ার জন্য উনি ভিআইপি রুমে যান। তারপর অঙ্কিতা দেবী যখন ভিআইপি টয়লেটে যান তখন দেখেন যে সেখানে দেওয়ালে লাগানো হয়েছে দেবদেবীর ছবি। সেই দৃশ্য দেখে উনি সেই মুহূর্তে হতভম্ব হয়ে যান। জানা গিয়েছে যে, সেই দেওয়ালে যেসমস্ত ছবি গুলি ছিল যেগুলি হল সরস্বতী, গণেশ,  মা কালী ও দেবাদীদেব মহাদেবের ছবি ছিল। এই দেবদেবীর ছবি টয়লেটের দেয়ালে লাগিয়ে রাখা হয়েছিল।

এই দৃশ্য দেখার পর বিন্দুমাত্র অপেক্ষা না করে সেই ভারতীয় সাহসী মহিলা অর্থাৎ অঙ্কিতা দেবী। উনি পাবের ম্যানেজারের কাছে নিজের আপত্তির কথা জানিয়ে লিখিত অভিযোগ জানান এবং ক্ষমা চাওয়ার জন্য বলেন। তারপরই পাবের মালিক এই ব্যাপারটি নিয়ে নড়েচড়ে বসেন। পাবের মালিক দুঃখ প্রকাশ করে জানান যে আমাদের অত্যন্ত ভুল হয়েছে আমরা জানতাম না যে এইগুলি ভারতীয় সাংস্কৃতি কে আঘাত করবে। ক্ষমা চাওয়ার সাথে সাথে সেই পাব থেকে ছবি গুলি খুলে দেওয়া হয়।একদিকে যখন হিন্দুরা নিজেদের আত্মমর্যাদাবোধ ভুলে যেতে শুরু করেছে তখন এই সাহসী মহিলার কাজ অবশ্যই প্রশংসনীয়।
#অগ্নিপুত্র

you're currently offline

Open

Close