Press "Enter" to skip to content

একতায় শক্তি, প্রমান করলো আমেরিকার অল্প সংখ্যক হিন্দুরা! হিন্দুদের কাছে ঝুঁকতে বাধ্য হলো ডোনাল্ড ট্রাম্পের পার্টি।

সংখ্যা বাড়লেই সবসময় শক্তিশালী হওয়া যায় না, এটা আমেরিকায় থাকা ধর্মভক্ত হিন্দুরা প্রমান করে দিয়েছে। আমেরিকায় ের সরকার ক্ষমতায় রয়েছে। রিপাবলিকান পার্টির নেতা অন্যদিকে আরেক পার্টির নাম ডেমোক্রেটিক। রেপাব্লিকান পার্টির দ্বারা ভুলবশত ভগবান শ্রী গণেশের অপমান হয়েছিল। যারপর আমেরিকার হিন্দুরা ডোনাল্ড ট্রাম্পকে ঝুঁকতে বাধ্য করে এবং লিখিতভাবে ক্ষমা চাইতে বাধ্য হয়। আসলে আমেরিকার বড়ো রাজ্য টেক্সসাসে রেপাব্লিকান পার্টি ডেমোক্রেটিক পার্টি বিজ্ঞানপন দিয়ে প্রচার চালাচ্ছিল। রিপাব্লিকেন পার্টির নির্বাচনী চিন্হ হাতি ও অন্যদিকে ডেমোক্রেটিক পার্টির নির্বাচনী চিন্হ গাধা।

ট্রাম্পের পার্টি হাতির জায়গায় ভগবান শ্রী গণেশের ছবি ছেপে দেন এবং বিজ্ঞানপনে প্রশ্ন করেন যে আপনার কাকে ভোট দেবেন। এই বিজ্ঞানপন সামনে আসার পরই হিন্দুরা প্রতিবাদে ফেটে যায় এবং বিদ্রোহ করতে শুরু করে। শেষমেষ ট্রাম্পের পার্টি লিখিতভাবে হিন্দুদের কাছে ক্ষমা চেয়ে নেয়। হিন্দুরাও বড়ো মন দেখিয়ে ট্রাম্পের পার্টিকে ক্ষমা করে দেয়।

জানিয়ে দি, আমেরিকায় হিন্দু সংখ্যা ১% এর থেকেও কম, কিন্তু আমেরিকায় থাকা হিন্দুদের মধ্যে শিক্ষার সাথে সাথে একতা, ধর্ম সম্পর্কে জ্ঞান খুবই প্রবল। যার জন্যে খুব অল্প সংখ্যক থাকার পরেও ট্রাম্পকে ঝুকিয়ে দেয় সমাজ। জানিয়ে দি আমেরিকায় যতগুলি শিক্ষিত কমিউনিটি রয়েছে তার মধ্যে সবথেকে বেশি শিক্ষিত ও উন্নতশালী কমিউনিটি এই হিন্দুরাই।

অন্যদিকে ে খোলাখুলি হিন্দুদের আস্থা নিয়ে মজা করে হলে শুধু মাত্র দেশভক্ত হিন্দুরাই প্রতিবাদ করে বাকিরা তথাকথিত সেকুলারিজমের বার্তায় ভেসে থাকে। আমেরিকার হিন্দুরা একদিকে জাতপাতের উর্ধে উঠে একত্রে নিজের ধর্মকে রক্ষা করে সেখানে ের হিন্দুরা জাতপাত নিয়ে নিজেরাই লড়াই করতে ব্যাস্ত থাকে।