Press "Enter" to skip to content

আজ ন্যাড়াপোড়ায় হোলিকার জায়গায় দহন করা হবে জঙ্গি মাসুদ আজাহারকে

আগামীকাল হিন্দুদের পবিত্র উৎসব দোলযাত্রা আর দোল যাত্রার আগের দিন প্রথা মেনে হিন্দুরা ‘ন্যাড়াপোড়া” অথবা ‘হোলিকা দহন” করে। হোলিকা দহন প্রসঙ্গে জানাই, স্কন্দপুরাণ  গ্রন্থের ফাল্গুনমাহাত্ম্য গ্রন্থাংশে হোলিকা ও প্রহ্লাদের উপাখ্যান বর্ণিত হয়েছে। হোলিকা ছিলেন মহর্ষি কশ্যপ ও তাঁর পত্নী দিতির পুত্র হিরণ্যকশিপুর ভগিনী। ব্রহ্মার বরে হিরণ্যকশিপু দেব ও মানব বিজয়ী হয়ে দেবতাদের অবজ্ঞা করতে শুরু করেন। কিন্তু তাঁর পুত্র প্রহ্লাদ ছিলেন বিষ্ণুর ভক্ত। প্রহ্লাদ বিষ্ণুকে নিজ পিতার উপরে স্থান দেওয়ায় ক্রুদ্ধ হয়ে হিরণ্যকশিপু নিজের পুত্রকে পুড়িয়ে মারার আদেশ দেন। দাদার আজ্ঞায় হোলিকা প্রহ্লাদকে কোলে নিয়ে অগ্নিতে প্রবেশ করেন। কিন্তু বিষ্ণুর কৃপায় প্রহ্লাদ অক্ষত থাকেন, বরং আগুনে পুড়ে হোলিকারই মৃত্যু হয়। হোলিকার এই অগ্নিদগ্ধ হওয়ার কাহিনিই দোলের পূর্বদিনে অনুষ্ঠিত হোলিকাদহন বা চাঁচর উৎসবের সঙ্গে যুক্ত।

হিন্দু পুরাণ অনুযায়ী হোলিকার দহন পবিত্র। দুষ্টের দমন করে সৃষ্টের পালন করেছিলেন স্বয়ং ভগবান বিষ্ণু। আর আজকের এই শুভদিনে ভারতের নানারকম জঙ্গি হামলায় জড়িত, এবং কাশ্মীরের পুলওয়ামায় সিআরপিএফ এর কনভয়ে জঙ্গি হামলা করিয়ে ভারত মাতার বীর ৪৪ জওয়ানের বলিদানের কারণ হয়ে ওঠা জঙ্গি মাসুদ আজাহারকে দহন করা হবে। মহারাষ্ট্রের মুম্বাইতে ‘মাসুদ দহন” নামে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে আজ। এই অনুষ্ঠানে আজ ন্যাড়াপোড়ায় জঙ্গি মাসুদ আজাহারকে পুড়িয়ে তাঁর প্রতি ক্ষোভ মেটাবে মুম্বাইবাসী।

 

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.