Press "Enter" to skip to content

ভারতের সুপ্রিম কোর্ট রিপোর্ট করছে রাহুল গান্ধীকে? রাহুল গান্ধীকে পাচার করা হচ্ছে গোপন তথ্য?

ঘটনা খুবই গম্ভীর! আসলে কিছুজন রাফেল নিয়ে সুপিম কোর্টে আর্জি জানিয়েছিল। এরপর মোদী সরকারকে নির্দেশ দেয় একটা বন্ধ খামে সমস্থ তথ্য(দাম, চুক্তি ইত্যাদির বিবরণ) জানাতে। সরকার আদালতের নির্দেশ অনুযায়ী তথ্য আদালতকে জানায় একটা বন্ধ খামের মধ্যে দিয়ে। তবে এরপর কংগ্রেস সভাপতি এই নিয়ে যা মন্তব্য করেছিলেন তা চমকে দেওয়ার মতো। টুইট করে লিখেছেন- ে নিজের চুরি মেনে নিলেন নরেন্দ্র মোদী। প্রশ্ন উঠছে খাম বন্ধ চিঠিতে কি লেখা রয়েছে সেই খবর রাহুল গান্ধীর কাছে কিভাবে গেল। উনি কিসের ভিত্তিতে বলেছেন যে মোদী নিজের চুরি মেনে নিয়েছে। যদি সত্যি সরকার চুরি করে তাহলেও প্রশ্ন আসছে- সুপ্রিম কোর্টকে দেওয়া গোপন তথ্য রাহুল গান্ধী কিভাবে পেল।

এখানে দুটো বিষয় ঘটার সম্ভাবনা রয়েছে। একটা হলো রাহুল গান্ধী মূর্খের মতো ভুলভাল বকছেন। আরেকটা হতে পারে আদালতকে দেওয়া গোপন তথ্য রাহুল গান্ধীর কাছে পৌঁছে সেই ভিত্তিতে উনি টুইট করেছেন। রাহুল গান্ধী একজন বড়ো পার্টির নেতা তাই এই দুটো প্রশ্ন সবার আগে সামনে এসেছে- ১) ভারতের সুপ্রিম কোর্ট কি রাহুল গান্ধীকে রিপোর্ট করছে? ২) খামবন্ধ গোপন তথ্য কি কোনোভাবে রাহুল গান্ধীর কাছে পৌঁছে যাচ্ছে?

সুপ্রিম কোর্ট দেশের যেকোনো বিষয়ের তদন্ত নিজেই শুরু করানোর নির্দেশ দিতে পারে। এই অবস্থায় আদালতের উচিত রাহুল গান্ধীকে প্রশ্ন করা যে কোর্টের গোপন তথ্য কিভাবে রাহুল গান্ধী জেনেছেন? নতুবা এই মামলায় সরাসরি রাষ্ট্রপতিকে নাক গলাতে হতে পারে। রাহুল গান্ধী মুর্খামি করে মন্তব্য করেছে তাহলে সেটা আলাদা বিষয় কিন্তু যদি সুপ্রিম কোর্টের তথ্য উনার কাছে লিক হচ্ছে তাহলে সেটা খুবই গম্ভীর ও বিপদজ্জনক বিষয়।

প্রসঙ্গত জানিয়ে দি, আদালত কংগ্রেসের দুর্নীতির মামলায় তারিখের পর তারিখ বাড়িয়ে যাচ্ছে অন্যদিকে মোদী সরকারের বিরুদ্ধে মামলার তৎক্ষনাৎ শুনানি করেছে। তাই এখন এই বিষয়েও আদালতের উচিত একটা পদক্ষেপ নেওয়া।