Press "Enter" to skip to content

কার্গিল যুদ্ধে ইজরায়েল কিভাবে ভারতের সাহায্য করেছিল জানলে আপনিও অবাক হবেন।

পাকিস্থান এমন একটা দেশ যা ভারতের সাথে যুদ্ধে বার বার হারা সত্ত্বেও নিজেরদের সম্মান হারাবার জন্য চলে লড়াই করতে নেমে পড়ে। ৩ বার হারের পরেও পাকিস্থান ১৯৯৯ এ কার্গিল যুদ্ধে নেমে পড়েছিল। এই যুদ্ধে ভারতীয় বীর সৈনিকরা পাকিস্থানকে খুব লজ্জাজনক হার দিয়েছিল। এই যুদ্ধে ভারতীয় সৈনিক তাদের অদম্য সাহস ও বীরত্বের এক বড় নিদর্শন দেখা গেছিলো। কার্গিল যুদ্ধ ১৯৯৯ সালের মে ও জুলাই মাসের মধ্যে হয়েছে। স্থান ছিল কার্গিল জেলার এলওসি বর্ডার বরাবর। ভারতীয় সেনা কার্গিল এলাকাকে পাকিস্থানি অনুপ্রবেশকারী মুক্ত করতে চালু করেছিল অপেরাশন  বিজয়। আসলে ১৯৯৮-১৯৯৯ এর সময় প্রচন্ড ঠান্ডার কারণে ভারতের সৈনিকরা পাহাড়ের উঁচু জায়গায় থাকা ব্যাংকার খালি করে নীচে এসেছিল আর সেই সুযোগ নিয়ে পাকিস্থানি সৈনিকরা খালি পোস্ট দখল করে নেয়।

শুধু এই নয় ভারতের বুজতে পারার আগেই এলাকায় প্রচুর সংখ্যক সৈনিক নিযুক্ত করে। পাকিস্তান এর উদেশ্য ছিল যুদ্ধের মাধ্যমে শ্রীনগর পর্যন্ত দখল করে নেওয়া। ভারত ১ সপ্তাহে বুঝতে পারে পাকিস্থানের পরিকল্পনা। এর পর ভারত অপেরাশন বিজয় শুরু করে জয়লাভ করে। তবে এখানে উল্লেখ্য বিষয় যে গুরুত্বপূর্ণ সময়ে ভারতের সাহায্য করেছিল এক দেশ যার নাম ইজরায়েল। এটা সেই দেশ যা পাকিস্থানকে সাহায্য করার অনুরোধকে বাতিল করে ভারতের পাশে এসে দাঁড়িয়েছিল এবং ভারতের সাথে হাত মিলিয়ে যুদ্ধে সাহায্য করেছিল।

আসলে কার্গিল যুদ্ধের পরিস্থিতি এমন ছিল যে পাকিস্থান বেশি সুযোগ সুবিধা পাচ্ছিল। কারণ পাকিস্থানের সেনারা ছিল উঁচু এলাকায় অন্যদিকে ভারতের সেনা নীচে থাকায় পাকিস্তানের বিরুদ্ধে লড়াই করা কঠিন হয়ে উঠেছিল।  উপরে থাকা শত্রুর সাথে লড়াই করার অভ্যাসও ছিল না ভারতের এমনকি পাক ব্যাংকার পাহাড়ে লুকিয়ে থাকায় ভারতের বিমান সঠিক স্থানে টার্গেট করতে পারছিল না। এমনকি ইন্দোনেশিয়া সহ কিছু দেশ পাকিস্থানকে সাহায্য করার জন্য প্রস্তুত হয়েছিল। এই সময় ভারতের সাহায্য করতে মাঠে নেমে পড়ে ইজরায়েল। আমেরিকা ইজরায়েলের উপর চাপ প্রয়োগ করেছিল যাতে ইজরায়েল পাকিস্থানকে সাহায্য করে কিন্তু ইজরায়েল কারোর কথা না শুনে ভারতের পাশে দাঁড়িয়ে পড়ে। ইজরায়েলকে ভারতের পাশে নামতে দেখেই পিছু হাটে ইন্দোনেশিয়া সহ পাকিস্থান সমর্থক দেশগুলি।

যখন যুদ্ধ চরম স্থিতিতে তখন ইজরায়েল ভারতের জন্য হাতিয়ারও প্রদান করেছিল। ইজরায়েল থেকে পাওয়া হেরণে ও সার্চেযার ইউএভিড় মতো কিছু যন্ত্র
যা হাই এতিটুড পরিস্থিতির ছবি দিতে সক্ষম ছিল তার সাহায্য ভারত বিমানের মাধ্যমে উপর থেকে শত্রুর আসল স্থানে নজর রাখতে সক্ষম হয়। এমনকি বিমানের সাথে সাথে শত্রুদের স্যাটেলাইট ছবিও ভারতকে দেখানোর ব্যাবস্থা করেছিল ইজরায়েল। এমনকি উন্নতমানের গোলাবারুদ ও এসেছিল ইজরায়েল থেকে। এছাড়াও মিরাজ 2000H ফাইটার বিমানও দেয় ইজরায়েল যার সাহায্যে ভারত উপর থেকে পাকিস্থানীদের উপর সঠিক লক্ষ করতে সক্ষম হয়েছিল।

যার ফলস্বরূপ বহু পাকিস্থানি  সেনা নিহত হয় এবং আজকের দিনেই(২৬ শে জুলাই) ১৯৯৯ সালে কার্গিল যুদ্ধে জয়ী হয় ভারত। কার্গিল যুদ্ধের পরে ইজরায়েল ভারতের সেনাদের প্রশিক্ষণ দেয় উঁচু এলাকায় টিকে থাকার জন্য। সঠিক সময়ে যদি ইজরায়েল ভারতের পাশে এসে না দাঁড়াতো তাহলে ভারতকে আরো অনেক বলিদান দিতে হতো ।