Press "Enter" to skip to content

এবার ১ টাও অবৈধ বাংলাদেশি প্রবেশ করতে পারবে না ভারতে! ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে ইনস্টল করা হলো ইজরায়েলি সুরক্ষা সিস্টেম।

পুরো বিশ্বে সুরক্ষা টেকনোলজির দিক থেকে সবথেকে উন্নত দেশ ইজরায়েল। ভারতে অবৈধ বাংলাদেশীদের প্রবেশ আটকানোর জন্য এখন সেই টেকনোলজির ব্যাবহার করা হচ্ছে। জানিয়ে দি, ১৯৪৭ সালে ধর্মের নামে নতুন দেশ নিয়েছিল বাংলাদেশ ও পাকিস্থানের মুসলিমরা। তখন বাংলাদেশ পূর্ব পাকিস্থান নামে পরিচিত ছিল। পরে বাংলাদেশ পাকিস্থান থেকে আলাদা হয়ে নতুন দেশ হয়েছে। কিন্তু ভারতকে ভাগ করে আলাদা দেশ পাবার পরেও বাংলাদেশ থেকে অবৈধভাবে প্রচুর লোকজন ভারতে ঢুকে পড়ে। এমনিতে বাংলাদেশে হিন্দুদের জীবন নরকের মতো যার জন্য ভারত বাংলাদেশ থেকে আসা হিন্দু শরণার্থীদের স্বাগত জানায়। কিন্তু বাকিদের জন্য ভারতে কোনো জায়গা নেই, তা সত্ত্বেও লাগাতার সীমান্ত হয়ে বহু সংখ্যায় বাংলাদেশী ভারতে ঢুকে পড়ে। যার জন্য সীমান্তে লেগে থাকা আসাম, পশ্চিমবঙ্গের মতো রাজ্যগুলিতে জনঘনত্ব, বেকারত্ব, জাল নোটের ব্যাবসা, দাঙ্গা বেড়েই চলে।

তবে এবার সরকার বাংলাদেশ সীমান্তগুলিকে সিল করার কাজ শুরু করে দিয়েছে। অসমের ৬১ কিমি এলাকা যা বাংলাদেশ সীমান্তের সাথে জুড়ে ছিল সেই এলাকাকে পুরোপুরি ইজরায়েলি টেকনিক দিয়ে সিল করে দেওয়া হয়েছে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং গতকাল অসমে CIBMS অর্থাৎ Comprehensive Integrated Border Management System এর উদ্বোধন করেন।

এই সিস্টেমের মধ্যে সার্ভিলেন্স ক্যামেরা,মাইক্রোওয়েভ কমিউনিকেশন সিস্টেম,ইনট্রুসন ডিটেকশন সিস্টেম, ইজরায়লি সেন্সর ও সার্ভিলেন্স ড্রোন ইত্যাদি সহ নানা উন্নত প্রযুক্তি রয়েছে। যা কোনোভাবেই বাংলাদেশিদের অবৈধভাবে প্রবেশ করতে দেবে না। এই সিস্টেমের দেখাশোনা করবে BSF অর্থাৎ বর্ডার সিকিউরিটি ফোর্স। ইজরায়েল প্যালেস্টাইন থেকে অবৈধ কট্টরপন্থীদের আটকানোর জন্য এই সিস্টেম ইনস্টল করে রেখেছে। আর এখন ভারত এই সিস্টেম অসমে ইনস্টল করে দিয়েছে। খুবই শীঘ্রই পশ্চিমবঙ্গেও এই সিস্টেম ইনস্টল করে দেওয়া হবে।

7 Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.