Press "Enter" to skip to content

এবার থেকে প্রধানমন্ত্রী আর রাষ্ট্রপতির ছবির দুর্ব্যাবহার করলেই ছয় মাসের জেল আর ৫ লক্ষ টাকা জরিমানা

নয়া দিল্লীঃ প্রধানমন্ত্রী আর রাষ্ট্রপতির ছবির দুর্ব্যাবহার করলে এবার থেকে ছয় মাসের জেল হতে পারে। ব্যাক্তিগত কোম্পানির বিজ্ঞাপনে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ছবি ব্যাবহার করা নিয়ে কেন্দ্র সরকার প্রতীক এবং নাম আইন ১৯৫০ এ প্রথমবার সাজার প্রাবধান আনতে চলেছে। এর সাথে সাথে জরিমানার রাশি এক হাজার গুণ বাড়িয়ে পাঁচ লক্ষ করে দেওয়া হয়েছে।

কনজিউমার মন্ত্রালয় সাত দশক পুরনো আইনে সংশোধনের ড্রাফট তৈরি করে নিয়েছে। আইন মন্ত্রালয় এই ব্যাপারে সহমতি জানিয়েছে। সার্বজনিন রায়ের পর ড্রাফট কেন্দ্রীয় ক্যাবিনেটের কাছে পাঠানো হবে। সরকার এই আইনকে সংসদের শীতকালীন অধিবেশনে পাশ করানোর চেষ্টায় আছে।

প্রসঙ্গত, বিগত কয়েক বছরে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ছবি বিজ্ঞাপনে ব্যাবহার করা নিয়ে অনেক বিতর্ক সৃষ্টি হয়েছিল। সেই সময় সরকার বিজ্ঞাপনে প্রধানমন্ত্রীর ছবি ব্যাবহার করা দেশের দুটি বড় কোম্পানির বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নিয়েছিল। কিন্তু, নামমাত্র আর্থিক জরিমানার কারণে বড়সড় প্রভাব না পড়ার জন্য সরকার এবার আইনে বদল আনতে চলেছে।

এই আইন প্রথমবার লঙ্ঘন করলে জরিমানার রাশি এক লক্ষ পর্যন্ত হবে। এক বারের বেশি বার এই আইন লঙ্ঘন করলে ৫ লক্ষ টাকা পর্যন্ত জরিমানা করা হবে। আইন বারবার লঙ্ঘন করা হলে ৩ থেকে ৬ মাস পর্যন্ত সাজা হতে পারে। প্রতীক এবং নাম আইন প্রধানমন্ত্রী আর রাষ্ট্রপতির মতো পদে থাকা ব্যাক্তিদের প্রতিষ্ঠার সাথে রাষ্ট্রীয় প্রতীক আর ঐতিহাসিক মহত্বের সংরক্ষক। এই আইনের প্রধান উদ্দেশ্য হল, দেশের প্রধানমন্ত্রী এবং রাষ্ট্রপতির ছবি ব্যাবসায়িক ব্যাবহারের দিক থেকে দূরে রাখা।

you're currently offline