Press "Enter" to skip to content

নিজের পূর্বপুরুষদের সূর্যবংশী পরিচয় দিয়ে সনাতন ধর্ম আপন করলেন ইমরান খান

নয়ডা-এর নিজের ধর্ম পালটে ফেললেন। এবার তিনি ইসলাম ছেড়ে ধর্ম পালন করবেন। তিনি নিজের নাম বদলে রাঘব রেখেছেন। উনি দাবি করে বলেন যে, ওনার পূর্বপুরুষেরা সূর্যবংশী ঠাকুর ছিলেন, তাঁরা পরিস্থিতির চাপে পড়ে থেকে ইসলাম গ্রহণ করেছিলেন। রাঘব () এবার তাঁর বাকি জীবন হিন্দু হয়েই কাটাতে চান। এর জন্যই তিনি সনাতন ধর্ম আপন করেছেন। গ্রেটার নয়ডার বিশ্বনাথ মন্দিরে আগামী শনিবার (১৭ই আগস্ট) সমস্ত রকম ধর্মীয় প্রক্রিয়া সম্পন্ন করে হিন্দু ধর্ম গ্রহণ করবেন।

জফরুদ্দিন খান এর ছেলে ইমরান খান সংবাদমাধ্যমকে জানায় যে, সে পাঞ্জাব টেকনিক্যাল ইউনিভার্সিটি থেকে স্নাতক করেছেন। তিনি ধর্ম পরিবর্তন করার ইচ্ছে নিজেই নিয়েছেন, আর এর জন্য ওনার উপরে কেউ চাপ সৃষ্টি করেনি। আর এর জন্য তিনি এফিডেভিট করে এই ঘোষণা করেছেন।

উনি বলেন, সবাই জানে আমাদের পূর্বপুরুষরা সূর্যবংশী ছিল। কিন্তু কিছু সমস্যার জন্য ওনার পূর্বপুরুষেরা ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছিলেন। কিন্তু ধর্ম পরিবর্তনের পরেও ওনার পরিবার হিন্দুদের সমস্ত অনুষ্ঠান পালন করত। ঈদ আর বকরি ঈদ এর সাথে সাথে তাঁর পরিবার দীপাবলি আর হোলিও পালন করত। আর এখন ওনার পরিবারের মুক্তমনা চিন্তাভাবনা ওনাকে নিজের অন্তরআত্মার কথা শোনার অনুমতি দিয়েছে, আর সেই জন্য তিনি নিজেকে পূর্ণ রুপে হিন্দু বানাতে চান।

রাঘব (ইমরান খান) বলেন, ওনার পরিবারের তরফ থেকে কেউ ওনার সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করেনি। ওনার দুই ভাই আছে, আর তাঁরা দুজনেই উচ্চ শিক্ষিত। ওনার স্ত্রীও আছে। কিন্তু কেউ ওনার এই সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করেনি। ইমরানের আশা যে, ওনার ধর্ম পরিবর্তনের পর ওনার ভাইয়েরাও হিন্দু ধর্মে ফিরে আসেবে।