Press "Enter" to skip to content

পাকিস্তানের বিরুদ্ধে প্রথম এই মারক মিসাইল ব্যাবহার করল ভারত, ইসরায়েল এর সাথে ১৮০০ কোটি টাকায় হয়েছিল চুক্তি

ভারতীয় সেনার তরফ থেকে গুজরাটের কচ্ছে নষ্ট করা পাকিস্তানি ড্রোন নিয়ে নতুন চাঞ্চল্যকর তথ্য উঠে এলো। ভারতীয় সেনা এই ড্রোনকে নষ্ট করার জন্য ইজরায়েল থেকে কেনা মিসাইল Derby এর ব্যাবহার করেছিল। ইজরাইলে স্পাইডার মিসাইল সিস্টেম অনুসরণে ছোট এবং মাঝারি দূরত্বের মারক ক্ষমতা সম্পন্ন Derby আর Python-5 মিসাইলের নির্মাণ করা হয়েছে। এই মিসাইল ভারতে প্রথমবার ব্যাবহার করা হয়।

ভারতীয় সেনা মঙ্গলবার গুজরাটের কুচ্ছ জেলায় আন্তর্জাতিক সীমান্তের পাশে এক পাকিস্তানি ড্রোন দেখতে পেয়েছিল। সূত্র অনুসারে, সেনার জওয়ানেরা উড়ন্ত জিনিষ দেখেই অপেক্ষা না করে মিসাইল হামলা করে দেয়। মিসাইলের নিশানা সোজা ড্রোনে গিয়ে লাগে, আর সেটি নষ্ট হয়ে যায়।

ঘটনাস্থলে আধিকারিকরা পৌঁছে ড্রোনের ধ্বংসাবশেষ নিজেদের কবজায় নিয়ে নেয়। সেনার আধিকারিক অনুসারে, ভারতীয় সেনা দ্বারা পিওকে তে পালটা হামলা করার পর পাকিস্তানি সেনা গোয়েন্দা গিরি করার জন্য এই ড্রোনকে ভারতে পাঠায়। এই ঘটনার পর সেনা গুজরাটের পাকিস্তান সীমান্তে প্রহরা বাড়িয়ে দেয়।

ছোট এবং মাঝারি দুরত্বে হামলা করা এই মিসাইল চরম গুরুত্বপূর্ণ। এই মিসাইলের ওজন ১১৮ কেজি, আর এটি ২০ থেকে ৫০ কিমি পর্যন্ত হামলা করতে পারে। এই মিশাইল ৩০ হাজার ফুট থেকে ৫২ হাজার ফুট পর্যন্ত উঁচুতেও যেতে পারে।

এই মিসাইল অ্যাক্টিভ লেজার আর electromagnetic proximity fuse এর সাথে হামলা করে। এই মিসাইলকে টেট্রা ট্রাক থেকেও লঞ্চ করা যায়। এই সময় এই মিসাইল ইজরাইল ছাড়া ভারত, জর্জিয়া, সিঙ্গাপুর আর ভিয়েতনাম এর কাছে আছে।

7 Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.