Press "Enter" to skip to content

ভারত কখনো হিন্দু রাষ্ট্র ছিলনা, আর হবেও না ‘ইনশাল্লাহ”- ওয়াইসি

অল ইন্ডিয়া মজলিস মজলিস-ই-ইত্তেহাদুল মুসলিমিন এর প্রধান তথা হায়দ্রাবাদের সাংসদ আসাদুদ্দিন ওয়াইসি রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সঙ্ঘের প্রধান মোহন ভাগবতের সেই মন্তব্যকে ট্যুইট করেন, যেখানে মোহন ভাগবত বলেছিলেন ‘ভারত হিন্দু রাষ্ট্র।” ওয়াইসি বলেন, ‘ভাগবত ভারতকে হিন্দু নাম দিয়ে আমাদের ইতিহাস মুছে ফেলতে পারবেনা। উনি এই কথা জোর গলায় বলতে পারবেনা যেন, আমাদের সংস্কৃতি, আস্থা, পথ এবং ব্যাক্তিগত পরিচয় সব হিন্দু ধর্মের সাথে জড়িত।” ভারত কখনো হিন্দু রাষ্ট্র ছিলনা, আর হবেও না। ‘ইনশাল্লাহ।”

ওয়াইসি বলেন, সঙ্ঘ নিজের এই মন্তব্যে স্থির যে, ভারত একটি হিন্দু রাষ্ট্র। নাগপুর রেশমিবাঘে সঙ্ঘের বিজয় দশমী উৎসবের সময় নিজের সম্বোধনে সঙ্ঘ প্রধান মোহন ভাগবত বলেন, রাষ্ট্রের বৈভব আর শান্তির জন্য যারা কাজ করছেন, তাঁরা সকলেই হিন্দু।

রাষ্ট্রীয় স্বয়ং সেবক সঙ্ঘের প্রধান মোহন ভাগবত শনিবার ভুবেনেশ্বরে বুদ্ধিজীবীদের একটি সভাকে সম্বোধিত করেন। উনি ওই সভায় বলেন, সঙ্ঘ কাউকে ঘৃণা করেনা। RSS এর উদ্দেশ্য হল ভারতে পরিবর্তনের জন্য সমস্ত সম্প্রদায়ের মানুষকে একজোট করা। মোহন ভাগবত বলেন, ‘রাষ্ট্রবাদে বাকিরা ভয় পাচ্ছে, কারণ তাঁরা এটাকে হিটলার আর মুসোলিনির সাথে যুক্ত করে দিচ্ছে। কিন্তু ভারতে রাষ্ট্রবাদ এমন না, কারণ এই রাষ্ট্র নিজের সংস্কৃতি দিয়ে তৈরি।”

মোহন ভাগবত বলেন, ‘সবথেকে ভালো উপায় হল, এই রাষ্ট্রবাদে উৎকৃষ্ট মানুষ তৈরি করা। যারা সমাজে বদল আনার সাথে সাথে দেশের চিত্র বদলানোর জন্য গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। আমাদের দেশের ১৩০ কোটি মানুষকে একসাথে বদলে ফেলা সম্ভব না।” ভারতের বিবিধতার প্রশংসা করে মোহন ভাগবত বলেন, আমাদের দেশ এক সুত্রে বাধা আছে। আমাদের দেশের মানুষেরা বিভিন্ন ভাষা, সংস্কৃতি আর ভৌগলিক অবস্থানের মাঝেও নিজেকে ভারতীয় বলে মনে করে।

মোহন ভাগবত বলেন, এই অদ্বিতীয় অনুভূতির কারণ হল মুসলিম, পারসি আর অন্যান্য সম্প্রদায়ের মানুষ ভারতে নিজেকে সুরক্ষিত মনে করে। উনি বলেন, ‘ইহুদী গোটা বিশ্বে সন্মান না পেলেও, আমাদের ভারতে তাঁরা মাথা তুলে সন্মানের সাথে বেঁচে আছে। পারসিয়ান দের পূজা আর মূল ধর্ম কেবল ভারতেই সুরক্ষিত আছে। বিশ্বে সর্বাধিক সুখি মুসলিম একমাত্র ভারতেই পাওয়া যায়। আর এর প্রধান কারণ হল, আমরা হিন্দু।”