Press "Enter" to skip to content

বিশ্বের সবথেকে এডভান্স হেলিকপ্টার কিনতে চলেছে ভারত! সমুদ্র পথে আটক করা হবে চীনের গতি।

হিন্দ মহাসাগরে ের আক্রমক রূপকে দেখে খুব শীঘ্রই বিশ্বের সবথেকে এডভান্স বলে পরিচিত মাল্টি রোল , রোমিয়(রোমিয় এমএইচ -৬০) কিনতে চলেছে। থেকে এই ধরণের ২৪ টি হেলিকপ্টার কেনার সিধান্ত করেছে। ের জন্য এই চুক্তি খুবই গুরুত্বপূর্ণ কারণ চীন লাগাতার হিন্দ মহাসাগরে প্রভাব বিস্তার করার চেষ্টা করছে। ইন্ডাস্ট্রি এক্সপার্টদের মতে এগুলি বর্তমান সময়ে ফ্রীগেট, ডিস্ট্রয়ার্স, ত্রুসার ও এয়ারক্রাফট ক্যারিয়ার দ্বারা অপারেট হওয়া সবথেকে সক্ষম নেভাল হেলিকপ্টার। এমএইচ-৬০ রোমিয় স্মারকের দ্বারা হিন্দ মহাসাগরে ের শক্তি বৃদ্ধি পাবে। চীনের আক্রমক রুপ দেখে এই হেলিকপ্টার খুবই বেশি প্রয়োজন রয়েছে। আমেরিকার ডিফেন্স ইন্ডাস্ট্রি সূত্রে বলা হয়েছে, এই হেলিকপ্টার নেভির জন্য কিনতে চাই।

এই চুক্তি ২ আরব ডলারে(১৪ হাজার কোটি) হওয়ার অনুমান রয়েছে। এক দশক থেকে ভারতের এই ধরণের আন্টি সাবমেরিন হান্টর হেলিকপ্টারের প্রয়োজন রয়েছে। সূত্রের খবর, সম্প্রতি রিজিনাল সাবমিটে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং আমেরিককের ভাইস প্রেসিডেন্ট এর মধ্যে একটা মিটিং হয়েছিল। মনে করা হচ্ছে কিছু মাসের মধ্যে এই চুক্তিকে চূড়ান্ত রূপ দেওয়া হবে।

ট্রাম সরকার দ্বারা ভারতের ডিফেন্স প্রয়োজনগুলিকে মেটানোর জন্য হাই টেক মিলিটারি হার্ডওয়ার খোলা হয়েছে। যাতে দুই দেশের মধ্যে চুক্তিতে গতি বৃদ্ধি হয়েছে। নরেন্দ্র মোদীর ও ট্রাম এই নিয়ে আরো একবার মিটিং এ বসতে পারে বলে অনুমান করা হচ্ছে। ৩০ নভেম্বর ও ১ ডিসেম্বর জি-২০ মিটিং এ মোদী ও ট্রাম্পের মধ্যে মিটিং সম্পন্ন হতে পারে। যদিও এই নিয়ে দুই দেশের সরকার কোনো মন্তব্য করেনি।

সূত্রের খবর এই হেলিকপ্টার হাতে পাওয়ার পর ভারত এই ধরণের ১২৩ টি হেলিকপ্টার দেশের মধ্যে তৈরি করার যোজনা করবে। লকহেড মার্টিনের এম এইচ ৬০ হেলিকপ্টার বিশ্বের সবথেকে এডভান্স হেলিকপ্টার হিসেবে পরিচিত। আমেরিকার নৌবাহিনী এই হেলিকপ্টার খোলা সমুদ্রে, উপকূলীয় অঞ্চলে আন্টি সাবমেরিন হিসেবে ব্যাবহার করে।