Press "Enter" to skip to content

বড় খবর: আটকানো হবে পাকিস্থান যাওয়া সমস্ত জল। যমুনা নদীর দিকে মুড়ে দেওয়া হবে জলের গতি।

পাকিস্থান যা কখোন কল্পনা করেনি তাই তাই করতে শুরু করে দিয়েছে মোদী সরকার। প্রথমে তো MFN স্ট্যাটাস বাতিল করে পাকিস্থানের উপর ২০০% ট্যাক্স লাগিয়ে দিয়েছে ভারত সরকার। যার ফলে মাত্র ৪ দিনের মাথায় পাকিস্থানের ব্যাবসা সম্পুর্নরূপে মার খেতে শুরু হয়েছে। অন্যদিক ভারতীয় সেনা পাকিস্থানে স্ট্রাইক কররার জন্য অন্য রূপরেখা তৈরি করছে। আর এখন আর একটা বড় খবর সামনে আসছে যা পাকিস্থানিদের কাঁদানোর জন্য যথেষ্ট। আসলে ভারত সরকার আধিকারিকভাবে এক বড় ঘোষণা করে দিয়েছে।

আসলে কোন মানুষকে বেঁচে থাকতে হলে প্রথম দুটি প্রয়োজনীয় বিষয় হলো খাদ্য ও জল। খাদ্যের থেকে জল বেশি প্রয়োজন, কারণ খাদ্য ছাড়া একটা মানুষ ১০ দিন বেঁচে থাকতে পারে। কিন্তু জল ছাড়া ৫ দিনের বেশি বেঁচে থাকা যায় না। এই জলের জন্যেই এবার পাকিস্থানকে কাঁদতে হবে। সরকার ভারত থেকে পাকিস্থান যাওয়া জল আটকানোর জন্য বড় ঘোষণা করে দিয়েছে।

কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নীতিন গতকড়ি বলেছেন যে ভারত থেকে পাকিস্থান যাওয়া সমস্থ জল আটকে দেওয়া হবে। এর জন্য পরিকল্পনা তৈরি করা হচ্ছে। ভারত থেকে পাকিস্থানের দিক যে জল যায় তার গতি যমুনার (হারিয়ান, পাঞ্জাব, রাজস্থান,গুজরাট, উত্তরপ্রদেশ) দিকে ঘুরিয়ে দেওয়া হবে।

হিমালয় থেকে শুরু করে অনেক নদী পাকিস্থানের দিকে যায়। পাকিস্থানের পাঞ্জাব ও সিন্ধ প্রান্ত হয়ে এই নদীগুলি আরবের খাঁড়ি পর্যন্ত পৌঁছায়। আর এই নদীর জলের উপরেই পাকিস্থান টিকে রয়েছে। ভারত জল আটকালে পাকিস্থান যুদ্ধ করবে এটা নিশ্চিত। ভারত জল আটকাবে এটা আধিকারিকভাবে ঘোষণা করে দেওয়া হয়েছে। এর অর্থ ভারত স্পষ্ট ইঙ্গিত দিয়েছে যে ভারত সমস্থ রকম যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত কিন্তু পাকিস্থানকে মরুভূমি বানিয়ে ছাড়া হবে।

11 Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.