Press "Enter" to skip to content

বেরিয়ে এল কাশ্মীরে সেনার অল আউট অপেরাশন এর রিপোর্ট: ২ বছরে মৃত্যু নিশ্চিত আতঙ্কবাদীদের।

কাশ্মীরে ভারতীয় সেনার অপেরাশন অল আউট এর রিপোর্ট কার্ড চলে এসেছে, তবে এবার এই রিপোর্টকার্ড ভারত সরকার নয় বরং এক বড়ো সংবাদপত্র নিউওয়ার্ক টাইমস বের করেছে। নিউওয়ার্ক টাইমস জানিয়েছে কিভাবে কাশ্মীরে আতঙ্কবাদীদের কোমর ভেঙে দিয়েছে। কাশ্মীরে আতঙ্কবাদী সংগঠন সংখ্যায় তো কমেছে সে একই সাথে আতংকবাদীদের সংখ্যা ২৫০ তে এসে দাঁড়িয়েছে। জানা যাচ্ছে ভারতের আন্তর্জাতিক চাপে পাকিস্থান কাশ্মীরে আতঙ্কবাদীদের সাহায্য কমিয়ে দিয়েছে।নিউওয়ার্কস টাইমস এর অনুযায়ী কাশ্মীরে আতঙ্কবাদীরা আর খুব বেশি হলে ২ বছর টিকে থাকতে পারবে।

ঘাঁটিতে আগত বেশিভাগ আতঙ্কবাদীরা অটোমেটিক হাতিয়ার দ্বারা মারা যায়। কাশ্মীরে বর্তমানে উপস্থিত ২৫০ আতঙ্কবাদীদের মধ্যে ৫০ জন কাশ্মীর থেকেই এসেছেন। বছর আগে পাকিস্থান কাশ্মীরে অস্থিরতা আনার জন্য হাজার হাজার আতঙ্কিকে কাশ্মীরে পাঠিয়েছিল যে কারণে বহু মানুষকে প্রাণ হারাতে হয়েছিল।

আসলে পিডিপি সরকারের সাথে বিজেপির জোট ভেঙে যাওয়া বর্তমানে রাজ্যপাল শাসন লাগু করা হয়েছে যাতে সেনা তাদের একশন ঠিক মতো চলতে পারছে। সবসময় আতঙ্কবাদীদের সমর্থন করে তাদের বাঁচানোর জন্য লেগে থাকতো যাতে সেনা সমস্যায় পড়তো।

এক বিবরণে নিউওয়ার্কস টাইমস জানিয়েছে যে পাকিস্থানের সরকার পরিবর্তনের প্রভাব কাশ্মীরে পড়বে এবং ঘাঁটিতে ছোট খাটো লড়াই হওয়ার আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়েছে। তবে এখন কাশ্মীর ঘাঁটিতে ২.৫ লক্ষের বেশি সেনা ,BSF ও পুলিশ কর্মী নিয়োজিত রয়েছে। এই রিপোর্ট এমন সময় এসেছে যখন সেনা জওয়ানরা আতঙ্কিদের মধ্যে আতঙ্ক সৃষ্টি করতে সক্ষম হয়েছে এবং ২ বছরের মধ্যে প্রত্যেক আতঙ্কবাদীর মৃত্যু নিশ্চিত করেছে।