Press "Enter" to skip to content

“ভারতের মুসলিমরা বাবর নয়, ভগবান রামের বংশধর”- কেন্দ্রীয় মন্ত্রী গিরিরাজ সিং ।

বিজেপি মন্ত্রী ফের একবার বিতর্কিত মন্তব্য করে খবরের শিরনামে উঠে এলেন। এবার তার খবরে আসার কারন হল প্রসঙ্গ। উত্তরপ্রদেশের মথুরায় মঙ্গলবার গিয়ে সেখানে দাঁড়িয়ে তিনি বলেন যে, মোগল অনুপ্রবেশকারী বাবরের উত্তরসুরি নয় মুসলিমরা। তারা আসলে হল ভগবান শ্রী রাম চন্দ্রের উত্তরপুরুষ। সেই জন্য তিনি মনে করে করেন যে, অযোধ্যায় তৈরি করার ক্ষেত্রে তাদেরও উচিৎ সাহায্য করা। রীতিমত হুমকি দেওয়ার মত করে এইদিন তিনি বলেন যে, হিন্দুদের ধৈর্য হারিয়ে ফেললে চলবে না যেটা তারা করছেন মন্দির তৈরি করার ক্ষেত্রে।

লোকসভা নির্বাচন প্রায় দোরগোড়ায় চলে এল। ফলে কেন্দ্র সরকারের উপর অযোধ্যায় রাম মন্দির ইস্যুতে দিনের পর দিন চাপ বাড়ছে, কারণ কংগ্রেস যেনতেন প্রকারে রামমন্দির নির্মাণ আটকানোর চেষ্টায় লেগে পড়েছে।কিছুদিন আগে আরএসএস সুপ্রিমো মোহন ভগবত এই রাম মন্দির ইস্যুতে বলেন যে, দেশে বসবাসকারী সকল মানুষই হিন্দু। ফলে সকলেরই এগিয়ে আসা উচিৎ রাম মন্দির ইস্যুতে।

নামাজ পড়ার ব্যাপারে মসজিদই কি একমাত্র জায়গা এই ব্যাপারে সুপ্রিমকোর্টে প্রধান বিচারপতি দিপক মিশ্র, বিচারপতি এস নাজির এবং বিচারপতি অশোক ভূষনের ডিভিশন বেঞ্চ বসে। সেখানে জানিয়ে দেওয়া হয় যে, নামাজ পড়ার জন্য ইসলাম ধর্মে মসজিদ বাধ্যতামূলক নয়। শীর্ষ আদালতে গেলে সেখানেও এই একই সিদ্ধান্ত বহাল থাকে।

ফলে এই রায় রাম মন্দির তৈরির পক্ষে কার্যকরী হয়। আসলে হিন্দুপক্ষ দাবি করেছিল নামাজ পড়ার জন্য ইসলাম ধর্মে মসজিদ বাধ্যতামূলক নয় এবং মসজিদ স্থান্তরিত করা যেতে পারে। সুপ্রিম কোর্ট এই বিষয়ে হিন্দপক্ষের দিকেই রায় দেয় এবং রাম মন্দির নির্মাণের পথ প্রশস্ত করে।
#অগ্নিপুত্রএ