Press "Enter" to skip to content

জম্মু কাশ্মীরে জঙ্গিদের প্রধান ‘হামিদ ললহারি”কে খতম করল সেনা, নিশ্চিহ্ন হয়ে গেলো জাকির মুসা’র গ্রুপ

শ্রীনগরঃ জম্মু কাশ্মীরের পুলওয়ামা জেলার ত্রালে হওয়া এনকাউন্টারে জঙ্গিদের মুখিয়া হামিদ লালহারিকে খতম করল সেনা। ললহারি জাকির মুসার পর জম্মু কাশ্মীরে সক্রিয় ভাবে জঙ্গি গতিবিধি চালাত। সেনার এই অপারেশনের পর জম্মু কাশ্মীর থেকে জাকির মুসা গ্রুপ নিশ্চিহ্ন হয়ে গেলো। জম্মু কাশ্মীরের ডিজিপি দিলবাগ সিং বুধবার একটি প্রেস কনফারেন্স করে পুলওয়ামা জেলার ত্রালে হওয়া এই এনকাউন্টার নিয়ে তথ্য দেন। উনি বলেন, ত্রালে হামিদ ললহারি ছাড়াও জইশ এর সাথে যুক্ত নাভিদ টাক আর জুনেইদ ভট্টকে খতম করা হয়েছে।

দিলবাগ সিং বলেন, ত্রালে এনকাউন্টারে খতম হওয়া জঙ্গিরা স্থানীয়। হামিদ ললহারি জঙ্গি সংগঠন আনসার গজাবত উন হিন্দ এর কম্যান্ডার ছিল। হামিদ ২০১৬ থেকে সক্রিয় ছিল। হামিদ জাকির মুসার পর জঙ্গি কার্যকলাপের দায়িত্ব নিয়েছিল। সেনা এই এনকাউন্টারে জাকির মুসা গ্রুপকে নিশ্চিহ্ন করে দিয়েছে।

উনি আরও বলেন, জঙ্গি সংগঠন গুলো নিরীহ মানুষ গুলোকে নিশানা বানাচ্ছে। জইশ এখন হিজবুল আর লস্কর জঙ্গি সংগঠনের সাথে এখন মিশে কাজ করছে। এই জঙ্গিরা রাজ্যের যুবকদের উস্কাচ্ছে। ডিজিপি যুবকদের পরামর্শ দিয়ে বলেছেন, জঙ্গিদের কোথায় কান না দিয়ে শান্তির রাস্তায় চলো। হাতিয়ার উঠালে সাজা মৃত্যু হবে। উনি আরও বলেন, জম্মু কাশ্মীরে পরিস্থিতি এখন সামান্য। বাজারে মানুষের গতিবিধি বেড়েছে। রাজ্যে এখন শান্তি বজায় আছে।

আপানদের জানিয়ে রাখি, দক্ষিণ কাশ্মীরের পুলওয়ামা জেলায় মঙ্গলবার চার ঘণ্টা এনকাউন্টার চালিয়ে জঙ্গি সংগঠন জইশ এ মোহম্মদ এর তিন জঙ্গিকে খতম করেছে। তাঁদের থেকে প্রচুর পরিমাণে বিস্ফোরক উদ্ধার হয়েছে।

you're currently offline