Press "Enter" to skip to content

ভারতে তৈরি হচ্ছে এশিয়ার সবথেকে বড় এয়ারপোর্ট! পিছিয়ে পড়বে চীনও।

জেবার আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর হবে বিশ্বের চতুর্থ বৃহত্তম বিমানবন্দর। এই অর্থে এটি দেশের বৃহত্তম বিমানবন্দর হবে। দিল্লি বিমানবন্দরটির আয়তন এর প্রায় অর্ধেক। আধুনিক সুবিধায় সজ্জিত হওয়ায় বিমানবন্দরে পার্কিং বিমানের জন্যও প্রচুর জায়গা থাকবে। এক্ষেত্রে প্রতিবেশী দেশ চীন কোথাও নেই, যদিও সৌদি আরব এবং আমেরিকার দুটি বিমানবন্দর পরে এটি হবে নম্বর। এখন অবধি সেরা এবং বৃহত্তম বিমান বন্দর এই দুই দেশে রয়েছে। IGI এর পরে দিল্লি-এনসিআরের জেভার অঞ্চলে দ্বিতীয় আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর নির্মাণের প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। কার্যক্রম শুরু হওয়ার সাথে সাথে জেবার বিমানবন্দরটি দেশের বৃহত্তম বিমানবন্দর হওয়ার রেকর্ডও গড়বে।

এলাকার দিক থেকে ইন্দিরা গান্ধী বিমানবন্দর জেবার থেকে অনেক পিছনে থাকবে। আইজিআইয়ের আয়তন 2066 হেক্টর। নাভি মুম্বাইতে নির্মিত হতে যাওয়া বিমানবন্দরটির আয়তনও ২৩২০ হেক্টর এবং জেবার বিমানবন্দরটি পাঁচ হাজার হেক্টরে নির্মিত হবে। ২০ কোটি যাত্রী 2050 সালের মধ্যে জেভার আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে যাতায়াত করবে। এক্ষেত্রেও জেভার বিমানবন্দর আইজিআইকে ছাড়িয়ে যাবে।

বর্তমানে আইজিআই থেকে ৬ কোটি যাত্রী বিমান দিয়ে যাতায়াত করে। IGI এর ২০২২-২৩ এর মধ্যে যাত্রীর সংখ্যা বার্ষিক সর্বোচ্চ ১০ কোটি হওয়ার অনুমান করা হচ্ছে। এর পরে যাত্রী সংখ্যা বৃদ্ধির সুযোগ এখানেই শেষ হবে। জেভা বিমানবন্দর থেকে বিমান সংস্থাগুলি পরিচালনও ২০২২-২৪ সালে শুরু হবে বলে আশা করা হচ্ছে। প্রাথমিকভাবে ৮ কোটি যাত্রী  বিমানের মাধ্যমে যাতায়াত অনুমান করা হয়েছে। বছরের পর বছর যাত্রী সংখ্যা বাড়বে। IGI এর ধারণ ক্ষমতা শেষ হওয়ার পরে জেভার বিমানবন্দরে বিমান পরিষেবা বৃদ্ধি পাওয়ায় যাত্রীদের সংখ্যাও বাড়বে।