Press "Enter" to skip to content

আমেরিকার এই বিখ্যাত উদ্যোগপতি মোদীর দ্বিতীয়বার প্রধানমন্ত্রী হওয়া নিয়ে যা বললেন তা বিরোধীদের চিন্তা বাড়িয়ে দেবে।

নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বে ভারত কি হারে বিকাশ করছে তা এখন শুধু ভারতবাসী নয় পুরো বিশ্ববাসী লক্ষ্য করেছে। মোদী যখন থেকে ক্ষমতায় এসেছে তখন থেকে রাজনীতিতে বিরোধিতায় থাকা ব্যাক্তিদের ঘুম পর্যন্ত উড়ে গেছে। বিরোধিরা এই নিয়ে চিন্তিত নয় যে তাদের হাত থেকে ক্ষমতা চলে গেছে।, বরং বিরোধীরা এই নিয়ে চিন্তিত যে তাদের সব কুকর্মের পোল এবার না দেশবাসীর সামনে খুলে যায়। ২০১৪ এর পর থেকে মিডিয়া বিরোধীদের কুকর্ম লুকিয়ে রাখলেও, সোশ্যাল মিডিয়ায় লালু ও গান্ধী পরিবারের পুরো পোল খুলে গিয়েছে। অন্যদিকে মোদী সরকারের কথা বললে, এই সরকার ভারতবাসীর আশার উপর বেশ দৃঢ়ভাবেই দাঁড়িয়েও থাকতে পেরেছে এ নিয়ে কোনো সন্দেহ নেই। রাজনীতিতে দুর্নীতি ও পরিবারতন্ত্র থাকার জন্য আগে দেশের যুবসমাজ রাজনীতি এড়িয়ে চলত কিন্তু এখন দেশের যুবকেরা মন খুলে মোদীর সমর্থনে রয়েছে।

কারণ যুবসমাজ জানে যে এবার দেশ একটা উপযুক্ত নেতার হাতে রয়েছে। দেশ তো দেশ, বিদেশেও মোদীর জনপ্রিয়তা ব্যাপক হারে বেড়েছে। আসলে আজ ভারতের বাচ্চা বাচ্চার মুখে মোদীর নাম রয়েছে। মোদী সরকার যেটা করে দেখিয়েছে সেটা বিরোধিরা ৬০ বছরেও করতে পারেনি। এই সমস্ত বিরোধীরা শুধুমাত্র অভিযোগ আনতে পারে এবং ক্ষমতায় থাকলে ভারতকে লুটতে পারে। অন্যদিকে মোদী সরকার ভারতবাসীকে নতুন ভারতের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে।

জানিয়ে দি, সম্প্রতি একজন শ্রেষ্ঠ উদ্যগপতি ভারতীয় সংবাদমাধ্যমের সাথে সাক্ষাতকালে দারুন মন্তব্য করেছেন। বলেছেন ভারতের বর্তমান শ্রী ভারতকে নতুন দিশা দেখাচ্ছে। এই কারণে শ্রী নরেন্দ্র মোদীর নেতৃত্বে ভারতের কাছে একটা সুযোগ রয়েছে বিশ্বের সবথেকে মজবুত অর্থব্যবস্থা তৈরি হওয়ার। কারণ মোদী এমন একজন ব্যক্তি যিনি দেশের মানুষের জন্য গুরুত্বপূর্ণ সিধান্ত নিতে বেশি দেরি করেন না।

শুধু এই নয় সাংবাদিক জন চেম্বার্সকে জিজ্ঞাসা করেন , ভারতে ২০১৯ এ মোদী না জয়ী হলে আপনার প্রতিক্রিয়া কি হবে। উত্তরে জন চেম্বার্স বলেন ২০১৯ এ মোদী না জিতলে ভারতের বিকাশের গাড়ি থেমে যেতে পারে। উনি বলেন, ভারত ২০১৪ এর আগে পিছিয়ে পড়া দেশের মধ্যে জানা যেত কিন্তু আজ ভারত অনেক এগিয়ে গেছে। এই ধারা বজায় রাখতে হলে শ্রী নরেন্দ্র মোদীর পদে থাকা আবশ্যক।

প্রিয় পাঠকদের কাছে প্রশ্নঃ নরেন্দ্র মোদীর শাসনকাল সম্পর্কে আপনাদের প্রতিক্রিয়া জানান।