Press "Enter" to skip to content

ভিডিওঃ গুজরাটে কানহাইয়া কুমার আর টুকড়ে গ্যাংকে আচ্ছা শিক্ষা দিলো জনতা, এবার কিছু করার আগে পঞ্চাশ বার ভাববে এরা

র‍্যালি সফল না বিফলে গেলো সেটা ওই সভায় শুনতে আসা জনতাই বলতে পারবে। ভাড়া করে তো লোক আনাই যায়। কিন্তু ভাড়া করে মাত্র কয়েক হাজার মানুষই আনা যায়, লাখ লাখ না। গুজরাটের রাজকোটে নরেন্দ্র মোদীর বিরুদ্ধে একটি বড় র‍্যালির আয়োজন করে হয়েছিল, এই র‍্যালির আয়োজক ছিলেন নিজেকে প্যাটেল সম্প্রদায়ের নেতা বলা হার্দিক প্যাটেল। নিজেকে দলিতদের মসিহা বলা জিগ্নেশ মেওয়ানি। আর বামপন্থী দের প্রাণ পুরুষ কানহাইয়া কুমার।

গুজরাটের রাজকোটে এরা তিনজন মিলে এই সভা করে। আর তাঁদের সাথে পরোক্ষ ভাবে সাহাজ্য করে কংগ্রেস তথা রাহুল গান্ধী। কিন্তু এদের দেখতে আর শুনতে ৫০০ মানুষ ও আসেনি। এরা ওই সভার জন্য যেই গ্রাউন্ড বুক করেছিল। সেটা প্রায় খালিই ছিল। এই ভিডিও তখনকার যখন এরা তিনজনই মঞ্চে ছিল, আর সেই মঞ্চ থেকে অন্যজন ভাষণ দিচ্ছিল।

মিডিয়া এদের র‍্যালিকে সফল প্রমাণিত করার জন্য পুরো ময়দানের ছবি দেখায় নি। কারণ পুরো ময়দানই ছিল ফাঁকা। শুধু যেখানে একটু ভিড় বেশি ছিল, সেখানকার ছবি দেখিয়ে প্রচুর ভিড় প্রমাণ করার চেষ্টা করা হয়েছে। রাজকোটের জনতা এই তিনজনকে যোগ্য সন্মান দিয়েছে।

আসলে এরা কেউ না। এরা হল কংগ্রেসের হয়ে কাজ করা একদল মানুষ। এদের আগে কোনদিনও দেখা যায়নি। এরা কংগ্রেস আমলে করা কোন দুর্নীতি নিয়ে কথা বলেনা। এরা ইন্দিরা গান্ধীর ইমারজেন্সি কালকে দেশের গর্ব বলে পরিচয় দেয়। ইরা ইন্দিরার মৃত্যুর পরে লাখ লাখ শিখের উপর অত্যাচার নিয়ে কোনদিনও মুখ খোলেনা।

কিন্তু কাশ্মীরে সেনার হাতে এক জঙ্গি মরলেই, এরা কান্নাকাটি শুরু করে দেয়। এরা সেনাকে ধর্ষক আর গুন্ডা বলতে একবারও ভাবেনা। এরা বুরহান ওয়ানির মত জঙ্গিদের শহীদ বলে আখ্যা দেয়। এরাই দান্তেওয়ারায় কমিউনিস্ট জঙ্গিদের হাতে ৭৬ জন সেনার জওয়ান মরলে কলেজ ক্যাম্পাসে পার্টি দেয়।

এরা হল সেই মানুষ যারা, সংসদ ভবন হামলার মূল অভিযুক্ত আফজল গুরুকে শহীদ বলে, আর ওই জঙ্গির জন্য আন্দোলন করে। এরা হল সেই মানুষ যারা ‘ভারত তেরে টুকড়ে হোঙ্গে” স্লোগান এর জন্য বিখ্যাত। এতকিছুর পর এদের মানুষ দেখতে আর শুনতে যাবে?

আসলে এরা চেয়েছিল পপুলারিটি। তাই মোদী বিরোধী কথা বলে রাতারাতি মিডিয়ার কাছে হিরো হয়েছিল। আর তারপর থেকেই এরা নানান ভাবে দেশ বিরোধী কাজ করে আসছে। আর এদের সমর্থন দেওয়ার জন্য এদের পাশে দাঁড়াচ্ছে তামাম বিজেপি বিরোধী দল।

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *