Press "Enter" to skip to content

বড় খবরঃ JNU এর বামপন্থী ছাত্র সংগঠন VC-এর বাড়িতে হামলা করে ওনার স্ত্রীকে বন্দি বানালো!

জওহর লাল নেহেরু বিশ্ববিদ্যালয় (JNU) তে সোমবার রাতে বামপন্থী ছাত্র সংগঠন ভাইস চ্যান্সেলর জগদীশ কুমারের আবাস ঘেরাও করে ফেলে। জগদীশ কুমার অভিযোগ করেন যে, বামপন্থী ছাত্র সংগঠন ওনার বাড়ি ঘিরে বাড়িতে ভাঙচুর চালায় আর ওনার স্ত্রীকে বন্দি বানায়।

দিল্লি পুলিশ অনুযায়ী, সোমবার সন্ধ্যেয় জওহর লাল নেহেরু বিশ্ববিদ্যালয় (JNU) এর ভাইস চ্যান্সেলর এর বাড়ি পর্যন্ত বামপন্থী ছাত্র সংগঠন মিছিল করার আহ্বান করেছিল। আর তাঁরা সেই মিছিল নিয়ে ভাইস চ্যান্সেলর এর বাড়িতে ঢুকে অকথ্য অত্যাচার করে। পরে সুরক্ষা কর্মীরা তাঁদের বাঁধা দিলে তাঁরা পিছু হটতে বাধ্য হয়।

জওহর লাল নেহেরু বিশ্ববিদ্যালয় এর ভাইস চ্যান্সেলর টুইট করে জানান, ‘ আজ সন্ধ্যেয় বামপন্থী ছাত্র সংগঠন আমার আবাসে ঢুকে অত্যাচার চালায়, আর আমার স্ত্রীকে কয়েক ঘণ্টা বন্দি বানিয়ে রাখে। এটাই কি বিরোধিতার নিয়ম? ঘরে ঢুকে একা মহিলাকে এরকম ভাবে অত্যচার করা কি ঠিক?”

জওহর লাল নেহেরু বিশ্ববিদ্যালয় এর বামপন্থী ছাত্র সংগঠন আগাগোড়াই নিজেদের ইচ্ছে মত কাজ করে বিতর্ক সৃষ্টি করে। মনে রাখতে হবে এরা সেই ছাত্র সংগঠন যারা জঙ্গি আফজল গুরুর সমর্থনে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে ‘ ভারত তেরে টুকড়ে হোংগে ” এর স্লোগান দিয়েছিল। আর এদের মাস্টার মাইন্ড ছিল কানহাইয়া কুমার, যিনি ভারতীয় সেনাকে ধর্ষক পর্যন্ত বলেছিলেন।

আর এটাই সেই জওহর লাল নেহেরু বিশ্ববিদ্যালয় আর এটাই সেই বামপন্থী ছাত্র সংগঠন, যারা বারবার বাক স্বাধীনতার নামে দেশ বিরোধী কার্যকলাপ করে যায়। দান্তেওয়ারায় নকশালি হামলার পর এরাই ক্যাম্পাসে উৎসব করেছিল। মনে রাখবেন ২০১০ এ দান্তেওয়ারায় সেই নকশালি হামলায় আমদের দেশের ৭৬ জওয়ান শহীদ হয়েছিলেন।

Be First to Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *