Press "Enter" to skip to content

নির্বাচনে কানায়া কুমারের বিরুদ্ধে বিজেপি কাকে প্রার্থী করতে চলেছে তার নাম শুনলে বিরোধীদের ঘুম উড়ে যাবে।

২০১৯ লোকসভা ে নরেন্দ্র মোদীকে পরাজিত করার জন্য বিরোধীরা সমস্ত শক্তি লাগিয়ে দিয়েছে। যার প্রভাব বিধানসভা েও দেখা গিয়েছে। শুধু এই নয়, মোদী সরকারকে পরাস্ত করার জন্য বিরোধীরা মহাগটবন্ধন বানিয়েছে। যদিও প্রত্যেক
মহাগটবন্ধন বড়ো ঝটকা পেয়েছে এবং হারের সম্মুখীন হয়েছে। বিরোধীরা মোদী সরকারকে হারানোর জন্য নতুন নতুন প্ল্যান করতে আরম্ভ করেছে। বিরোধীরা এবার বিহারের বেগুসরায় থেকে জওহরলাল নেহেরুর ছাত্রসঙ্ঘের পূর্ব অধ্যক্ষ কানায়া কুমারকে দাঁড় করানো সিধান্ত নিয়েছে। ের নির্বাচন লড়ার খবর আসার সাথে সাথে শুধু বিহার নয় পুরো দেশের রাজনীতিতে তোলপাড় শুরু হয়েছে।

রবিবার দিন খবর আসে যে RJD , কংগ্রেস ও বাকি বিরোধীরা একত্র হয়ে কমিউনিস্ট পার্টির প্রার্থী হিসেবে কানায়া কুমারকে নির্বাচনে দাঁড় করাচ্ছেন। জানিয়ে দি কানায়া কুমারের নাম JNU তে ভারতবিরোধী শ্লোগান দেওয়ার অভিযোগে বহুবার কুখ্যাত হয়েছিল। তবে কানায়া কুমারের নাম উঠে আসার পর এমন আরেকটা নাম উঠে এসেছে যা শোনার পর আপনিও চমকে উঠবেন এবং একই সাথে বিরোধীদের রাতের ঘুম উড়ে যাবে।

আসলে কানায়াই কুমার বেগুসরায়ের বাসিন্দা তাই উনাকে বিরোধীরা প্রার্থী করেছেন। এখন শোনা যাচ্ছে বেগুসরায় থেকে রাকেশ সিনহাকে প্রার্থী হিসেবে দাঁড় করাতে পারে। রাকেশ সিনহাকে বর্তমানে রাজ্য সভার সাংসদ এবং সঙ্ঘের প্রবক্তা হিসেবে জনগণের কাছে পরিচিত। উল্লেখ্য, ও কানায়া কুমার দুজনেই বেগুসরায়ের বাসিন্দা।

এখন যেহেতু বিরোধীরা এক হয়ে বামপন্থীরা প্রার্থী হিসেবে কানায়া কুমারকে নির্বাচনের প্রার্থী চলেছে। তাই মনে করা হচ্ছে বিজেপি, চিন্তাধারাকে মার দিতে রাকেশ সিনহাকে প্রার্থী করতে পারে। আর যদি এমনটা হয় তাহলে চিন্তাধারাকে উপড়ে ফেলার একটা বড়ো সুযোগ পাবে বিজেপি। রাকেশ সিনহা এই বিষয়ে সরাসরি কিছু না বললেও টুইটের মাধ্যমে একটা সংকেত দিয়েছেন।