Press "Enter" to skip to content

“ভারতীয় সেনা আমাদের জন্য আল্লাহর থেকেও উপরে”: ইমাম আলী,গরিব কাশ্মীরি মুসলিম।

কাশ্মীরের কেরানা সেক্টরে এক মুসলিম পরিবার, ওই সেক্টরে নিযুক্ত জওয়ানদের জন্য রোজ দুই বেলা খাবার প্রেরণ করে। ওই পরিবারের বক্তব্য যে তাদের জন্য ভারতীয় সৈনিক আল্লাহর উপরে। এককালে পৃথিবীর স্বর্গ নামে পরিচিত থাকা কাশ্মীরী কট্টরপন্থীদের কাছে ভারতীয় সেনা শত্রু হলেও, এই মুসলিম পরিবারের কাছে ভারতীয় সেনা আল্লাহর উপরে।

কাশমীরের এই মুসলিম পরিবারে ভারতীয় সেনার উপর মন্তব্য করে যে অপুরুপ উদাহরন উপস্থাপিত করেছেন তা অবশ্যই সকল ভারতীয়র জানা উচিত।কাশ্মীরের কেরানা এলাকায় থাকা ইমাম আলীর পরিবার খুবই দরিদ্র। ইমাম সারাদিন বাজারে সবজি বিক্রি করে যারপর তার পরিবার দুবেলা খাবার সংগ্রহ করতে সক্ষম হয়। এরপরেও ইমাম আলীর পরিবার দু বেলা জওয়ানদের জন্য খাবার তৈরি করে। ইমাম আলী নিজে গিয়ে জওয়ানদের ক্যাম্পে খাবার দিয়ে আসেন।

ইমাম বলেন যে আমাদের জওয়ান আমাদের জন্য আল্লাহর থেকেও উপরে। উনি হিন্দি ভাষায় বলেছেন, ” হামারে ফৌজি হামারে লিয়ে সে বাড়কার হ্যায়।” ইমাম আলী বলেন, সৈনিকরা দিনরাত নিজের জীবন ঝুঁকি নিয়ে আমাদের জীবন রক্ষা করে, আর যারা জীবন রক্ষা করে তারা অবশ্যই আল্লাহর থেকে উপরে। কাশ্মীরের এই পরিবারের থেকে সৈনিকরাও অত্যন্ত খুশির সাথে খাবার নেন। কট্টরপন্থীতে পূর্ন কাশ্মীরে এমন বড় হৃদয়ের মানুষ খুঁজে পাওয়া সত্যিই চমকে দেওয়ার মতো। জানিয়ে দি, কাশ্মীর এক সময় বিশ্বের স্বর্গ বলে পরিচিত ছিল কিন্তু পরবর্তীতে হিন্দুদের অতিরিক্ত ধার্মিক উদারতা এবং ইসলামিক আগ্রাসন কাশ্মীরের সেই পরিচয় নষ্ট করে দিয়েছে। কাশ্মীর থেকে এমনভাবে হিন্দু বিতাড়ন করা হয়েছে যে এখন আতস কাঁচ নিয়ে খুঁজলেও হিন্দু পাওয়া যায় না।

এই গ্রামে ২১ টি মুসলিম পরিবার বাস করে। গরিব মুসলিম পরিবারের মাথার উপরে ছাদ পর্যন্ত ঠিক ঠাক নেই। কোনরকমে প্লাস্টিকের ছাদ তৈরি করে বসবাস করে। পরিবার প্রত্যেক আল্লাহর কাছে এই প্রার্থনা করে যে ঝড়ো হাওয়া এসে যেন তাদের বাড়ি না ভেঙে দেয়। যদিও তাদের বিপদে পাশে এসে দাঁড়ায় ভারতীয় জওয়ানরা। এমনকি শিক্ষা, চিকিৎসা ক্ষেত্রেও জওয়ানরা এই মুসলিম পরিবারগুলির পাশে দাঁড়ায়। আর এই কারণেই আজ ইমাম আলীর কাছে ভারতীয় জওয়ানরা আল্লাহর উপরে জায়গা করে নিয়েছে। উল্লেখ্য,কাশ্মীরের ইসলামিক কট্টরপন্থীদের শিক্ষা নেওয়া উচিত ইমাম আলীর মুসলিমদের থেকে।

7 Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.