Press "Enter" to skip to content

কেজরিওয়ালের ছবি ফাঁস! পুরোদেশ আজ শোক পালন করছে আর কেজরিওয়াল করছেন এই জঘন্য কাজ।

শেষের পূর্ব প্রধানমন্ত্রী অটল বিহারী বাজপেয়ী এই মাদের মধ্যে নেই। আজ বিকেলে ৫.০৫ এ অটলজি সর্গবাস করেন। ১১ জুন থেকে অটলজি এমস এ ভর্তি ছিলেন। প্রধানমন্ত্রী মোদী সহ বড়ো নেতারা লাগাতার উনার শারীরিক অবস্থার খোঁজ নিচ্ছিলেন। কিন্তু গতকাল স্বাধীনতা দিবসের রাতে উনার শারীরিক অবস্থা একটু বেশি খারাপ হয়ে পড়ে এবং প্রধানমন্ত্রী মোদী আরো একবার উনার সাথে দেখা করতে পৌঁছান। আজ দেশের বড়ো বড়ো নেতা এমনকি আমিত শাহ অনেক সময় ধরে এমসে উপস্থিত ছিলেন এবং উনার সুস্থতার কামনা করছিলেন। কিন্তু ৯৩ বছরের অটলজি শেষমেষ আমাদের ছেড়ে চলে গেলেন।

অটলজি সেই সমস্ত নেতাদের মধ্যে ছিলেন যার প্রভাব শুধু মাত্র নিজের পার্টির উপরেই ছিল না একইসাথে অন্য পার্টিতেও ওনার প্রভাব ছিল। দেশের সবথেকে জনপ্রিয় সম্মানীয় নেতাদের মধ্যে অন্যতম ছিলেন অটলজি। সেই দিকেই লক্ষ রেখে বিজেপি তাদের সমস্ত মিটিং ও কার্যক্রম ক্যান্সেল করে দেয়। এমনকি ১৫ আগস্টের জন্য দপ্তরে যে সাজানো হয়েছিল তাও সরিয়ে ফেলা হয়। একদিকে যখন পুরো দেশ সারাদিন ধরে অটলজির জন্য পার্থনা করছিল এবং এখন শোকপালন করছে তখন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী কেজরিওয়াল যা করছেন জানলে আপনিও রেগে লাল হয়ে উঠবেন।

আসলে কেজরিওয়ালের জন্মদিন এবং উনি আজ ৫০ বছরে পা দিয়েছেন। সেই হিসেবে আজ সকালেই প্রধানমন্ত্রী উনাকে অভিনন্দন জানান। কিন্তু লজ্জার বিষয় এই যে অটলজির দেহ ত্যাগের পরেও উনি নিজের জন্মদিন ধুমধাম করে পালন করতে শুরু করেছেন। সূত্রের খবর উনি দাবি করেছিলেন যে উনি নিজের জন্মদিন পালন করবেন না। কিন্তু এই মাত্র উনার এমন ছবি সামনে এসেছে যা আপনাকেও লজ্জা দেবে।

হ্যাঁ কেজরিওয়াল আজ লক্ষ লক্ষ মানুষের আবেগকে গুরুত্ব না দিয়ে নিজের জন্মদিনের কেক কাটতে ব্যাস্ত হয়ে পড়েছেন। পুরো দেশ যখন রত্ন হারানোর জন্য শোক পালন করছে তখন কেজরিওয়াল তার নোংরা চরিত্র ফুটিয়ে তুলে কেক কাটতে লেগে পড়েছেন। আজ কেজরিওয়ালের আসল চরিত্র সমস্ত দেশবাসীর কাছে ফুটে উঠেছে।কেজরিওয়ালের এই নোংরামি দেখে ফেসবুক থেকে টুইটার সমস্ত জায়গায় প্রতিবাদের ঝড় উঠেছে এবং মানুষজন কেজরিওয়ালকে ধিক্কার জানাতে শুরু করেছে।