Press "Enter" to skip to content

আবারও মুসলিম তোষণ! ভোটব্যাঙ্ক ধরে রাখতে ইসলামিক ধর্মগুরুদের বেতন দ্বিগুণ করছেন মুখ্যমন্ত্রী।

যত দিন যাচ্ছে বিজেপি বিরোধী দল গুলি ভোটব্যাঙ্কের এর জন্য এক বিশেষ সম্প্রদায়কে লাগাতার তোষণ করতে শুরু করেছে। তার প্রমান মিললো আবার লোকসভা নির্বাচনের ঠিক আগে দিল্লির আম আদমি পার্টি মুসলিম সম্প্রদায় এর জন্য করলো এক বড় ঘোষণা। কিছুদিন আগেই কেজিরিওয়াল তথা আম আদমি পার্টির দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী কলকাতায় ব্রিগেড এ এসে আর এক তোষণকারী বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সাথে জোটে এ হাত মেলান এবং এক হিন্দুত্ব বিজেপি বিরোধী জোট তৈরি করে। ভারতবর্ষে একটা সম্প্রদায়কে তোষণ করে যেতেন প্রকারে সরকারে আসায় এটাই প্রধান উদেশ্য। ভোট ব্যাঙ্কের লোভে কিছু রাজনৈতিক দলের নেতারা কতটা নিচে নেমেছে তা ধারণার বাইরে।

সম্প্রতি ঘোষণা করেছেন যে এবার থেকে মসজিদের এর ইমাম দের ভাতা ডবল করে দেওয়া হবে। সামনেই লোকসভা নির্বাচনে তাই কিভাবে মুসলিম সম্প্রদায়কে নিজেদের ভোটব্যাঙ্ক করা যায় সেই উদ্যেশ্যে এমনটাই করলেন তিনি। তিনি ঘোষণা করেন এইবার থেকে ইমামদের ভাতা 10000 থেকে একলাফে বাড়িয়ে 18000 টাকা করে দেওয়া হবে। এর ফলে দিল্লির 1500 মসজিদ এর 1500 ইমাম এবার থেকে 18000 টাকা করে ভাতা পাবে।

কেজিরিওয়াল এর এই নোংরা রাজনীতি আজ সবার চোখ এর সামনে চলে এসেছে।কিছুদিন আগেই কেজরিওয়াল ইমাম দের ডেকে বিজেপি কে হারানোর জন্য এক মিটিং করে তার পর এ আজ ভাতা বাড়ানোর কথা দেয়।এর পর থেকে স্পষ্ট হয়ে যায় যে বিজেপি বিরোধী দল গুলি তোষণ এর এক নোংরা রাজনীতি শুরু করেছে।

লক্ষণীয় বিষয় এই যে, রাজনৈতিক দলগুলির তোষণ রাজনীতির সাধারণ চোখে শুধুমাত্র একটা রাজনীতি মনে হলেও আগত ভবিষ্যতের জন্য এটা একটা বিশাল বড় সমস্যা সৃষ্টি করবে এবং সাম্প্রদায়িক হানাহানির জন্যেও এমন তোষণনীতি ভরপুরভাবে দায়ী।

10 Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published.