Press "Enter" to skip to content

কেরালায় দুই মেয়ের হত্যাকাণ্ডের হলো না ন্যায়বিচার! অভিযুক্তরা পেল মুক্তি, আসামিদের সাথে বামপন্থীদের লিঙ্ক নিয়ে প্রশ্নঃ

আবারও আদালতের কাছে ন্যায় পেল না এক পরিবার। ঘটনা কেরালায়, যেখান থেকে খুবই হতাশাজনক খবর সামনে আসছে। সোমবার কেরালার একটি আদালত দুই নাবালিক মেয়ের মৃত্যু ও যৌন হয়রানির মামলায় তিন আসামিকে বেকসুর খালাস দিয়েছে। দু’জন মেয়েকে যখন খুন করা হয়েছিল ২ বছর আগে সেই সময় যখন তাদের বয়স মাত্র ১৩ এবং ৯ বছর ছিল। পালাক্কাড় জেলার বালায়ার এলাকায় এক বাড়িতে এক মেয়েকে ঝুলন্ত অবস্থায় পাওয়া গেছিল। তার দু’মাস পরে আরও একটি ছোট মেয়ে আত্মহত্যার খবর সামনে এসেছিল। পোস্টমর্টেম রিপোর্টে জানা গেছে যে মেয়েটির সাথে যৌন নির্যাতন হয়েছে।

পর্যাপ্ত প্রমাণের অভাবে আদালত অভিযুক্তদের খালাস দিয়েছেন। ছোট মেয়েটির মরদেহ ময়না তদন্তে প্রকাশিত হয়েছিল যে তার সাথে অপ্রাকৃত যৌন সম্পর্ক তৈরি করা হয়েছিল।
এর আগে, মেয়েটি সাক্ষ্য দিয়েছিল যে সে তার বড় বোনের ঘর থেকে দু’জনকে বেরিয়ে আসতে দেখেছিল। এর কিছুদিন পরে ছোট মেয়েটিকেও ঝুলন্ত অবস্থায় পাওয়া গেছিল। এই হত্যার জন্য ভি মধু, শিবু এবং এম মধু দোষী সাব্যস্ত হয়েছিল এবং পরে তদন্তকারী দল তাকে গ্রেপ্তার করেছিল।

তিনজনকেই POCSO আইনের অধীনে বেশ কয়েকটি মামলায় অভিযুক্ত করা হয়েছিল।
বিশেষ POCSO আদালত এখন প্রমাণের অভাবে এই তিন আসামিকে খালাস দিয়েছেন। মেয়ে দুটির মা জানিয়েছেন যে আসামিরা আগেও তার মেয়েদের জ্বালাতন করত। তবে এখন অভিযুক্তদের রেহাই দেওয়ার খবর আসতেই আদালতের বিচার ব্যবস্থা নিয়ে প্রশ্নঃ উঠতে শুরু হয়েছে। ইংরেজদের তৈরি করে যাওয়া বিচার ব্যাবস্থা দেশের জনতাকে ন্যায় প্রদান করতে অক্ষম বলে দাবি উঠেছে। এমনকি কেরালার বামপন্থী সরকারের উপরেও নানা অভিযোগ উঠেছে। বামপন্থীদের সাথে অভিযুক্তদের সম্পর্ক রয়েছে বলে দাবি করা হয়েছে। কেরালার বেশ কয়েকটি জায়গায় এই ইস্যুতে বিক্ষোপ প্রদর্শনও হয়েছে।