Press "Enter" to skip to content

শরিয়া আদালতের সমর্থনকারীদের কড়া জবাব দিলেন অভিনেত্রী কোয়েনা মিত্র।

অল ইন্ডিয়া মুসলিম পার্সোনাল ল বোর্ড এবার অসাংবিধানিকভাবে এক বড়ো পদক্ষেপ নিতে চলেছে যাকে কেন্দ্র জুড়ে দেশজুড়ে হৈচৈ শুরু হয়েগিয়েছে। আসলে অল ইন্ডিয়া মুসলিম পার্সোনাল ল বোর্ড দেশের সমস্থ জেলায় মুসলিমদের সমস্যা মেটানোর জন্য শরিয়া আদালত বানানোর প্রস্তুত নিচ্ছে। অল ইন্ডিয়া পার্সোনাল ল বোর্ডকে ভারতের সবথেকে বড়ো মুসলিম সংগঠন বলে মনে করা হয়।

এই সগঠন ইসলামিক আইনের দ্বারা সমস্যা সমাধানের জন্য দেশের জেলাগুলিতে দার উল কাজা বা শরিয়া আদালত খোলার চেষ্টা করে চলেছে। এই প্রস্তাবের জন্য তারা ১৫ তারিখ একটা বৈঠকের আয়োজন করেছে। অল ইন্ডিয়া মুসলিম পার্সোনাল ল বোর্ডের এই পদক্ষেপের নিন্দা করে অভিনেত্রী কোয়েনা মিত্র বলেন এটা অসাংবিধানিক! এটা হিন্দুস্থান, শরিয়া আদালতের কোনো স্থান হবে না ভারতবর্ষের গণতন্ত্রে।কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী এই ব্যাপারে মুসলিম পার্সোনাল ল বোর্ডকে সমর্থন করায়, তার উপরেও আক্রমণ করেন কোয়েনা মিত্র। ওই বিষয়ে রাহুল গান্ধীরও সমালোচনা করে বলেন, ‘ এটা গণতন্ত্রের হুমকি, তবে এতে আশ্চর্যের কিছু নেই যে রাহুল গান্ধী এই বিষয়টিকে সমর্থন করছেন।

 

অন্যদিকে বিজেপি ও সমাজবাদী পার্টিও মুসলিম পার্সোনাল ল বোর্ডের বিরোধিতা করেছে। বিজেপি ল বোর্ডের বিরোধিতা করে জানাই যে দেশে ধার্মিক বিষয়ে চর্চা করতে পারেন কিন্তু দেশের আইন শৃঙ্খলা সমস্থ দেশের ন্যায়পালিকা বিচার করবে।কারণ ভারত কোনো ইসলামিক দেশ নয়।