Press "Enter" to skip to content

আদালতের রায় শুনে খুশি হলেন রামজন্মভূমি আন্দোলনের যোদ্ধা লালকৃষ্ণ আডবাণী! বললেন, এবার হবে মন্দির।

প্রাক্তন উপ-প্রধানমন্ত্রী লালকৃষ্ণ আডবাণী অযোধ্যা মামলায় সুপ্রিম কোর্টের রায়কে স্বাগত জানিয়েছেন। লালকৃষ্ণ আডবাণী রামজন্মভূমি আন্দোলনের একজন পুরানো ও বড়ো যোদ্ধা। উনি বলেছেন যে সুপ্রিম কোর্টের সিদ্ধান্তে তিনি অত্যন্ত খুশি। সমাজের প্রতিটি বিভাগকে এক সাথে চলতে হবে। লালকৃষ্ণ আডবাণী বলেন যে এবার অযোধ্যায় একটি ভব্য রাম মন্দির নির্মিত হবে। এর আগে অযোধ্যা সিদ্ধান্তের বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী আজ দেশকে সম্বোধন করেছেন। প্রধানমন্ত্রী মোদী বলেন যে আজকের সিদ্ধান্তটি ঐতিহাসিক। প্রধানমন্ত্রী মোদী  যে আজকের সিদ্ধান্ত থেকে আমাদের ধৈর্য শেখা উচিত। সুপ্রিম কোর্টের সিদ্ধান্ত নতুন সকাল নিয়ে আসবে।

উনি আরো বলেন, প্রতিটি বর্গের এই সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছে। আমাদেরকে নিউ ইন্ডিয়ার জন্য শপদ নিতে হবে এবং সবাইকে সাথে নিয়ে এগিয়ে যেতে হবে। আইনকে সম্মান করা আমাদের কর্তব্য। এর আগে প্রধানমন্ত্রী মোদী টুইট করে বলেছেন যে, ‘সুপ্রিম কোর্টের যে সিদ্ধান্তই অযোধ্যা নিয়ে আসবে, তা কারও বিজয় বা পরাজয় হবে না। দেশবাসীর কাছে আমার আবেদন এই যে আমাদের সকলের পক্ষে এই অগ্রাধিকার হওয়া উচিত যে এই সিদ্ধান্ত ভারতের শান্তি, ঐক্য ও সদিচ্ছার মহান ঐতিহ্যকে আরও জোরদার করা। ‘

জানিয়ে দি যে শনিবার সুপ্রিম কোর্ট এর বেঞ্চ অযোধ্যায় বিতর্কিত স্থান সম্পর্কিত বিষয়ে সর্বসম্মতিক্রমে রায় দিয়েছে। শীর্ষ আদালতের এই সিদ্ধান্ত রাম মন্দির নির্মাণের পথ সাফ করেছে। শীর্ষ আদালত নতুন মসজিদটি নির্মাণের জন্য সুন্নী ওয়াকফ বোর্ডকে একটি আলাদা স্থানে পাঁচ একর জমির জমি দেওয়ার জন্য কেন্দ্রীয় সরকারকে নির্দেশ দিয়েছে। আদালতের রায় আসার ফলে ভারত দেশ যে এক ধাপ এগিয়ে যেতে পেরেছে তা নিয়ে কোনো সন্দেহ নেই। কারণ এই সমস্যা নিয়ে আগামী দিনে চলতে থাকলে ভারতবাসী আগত সমস্যার সমাধানের জন্য কাজ করার সময় পেত না। তাই অতীতের এই বড়ো সমস্যার সমাধান খুবই প্রয়োজন ছিল, যা আজ সম্পন্ন হয়েছে।